দলে কাজ করার সুযোগ নেই, দত্তফুলিয়ায় বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিলেন ৩০০ কর্মী-সমর্থক

6
kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, নদিয়া: গত লোকসভা ভোটে নদিয়া জেলার দুটি আসনের একটিতে জয়লাভ করে বিজেপি। রানাঘাট আসনটি এখন বিজেপির দখলে। লোকসভা ভোটের পর থেকে এই জেলায় একটু একটু করে আরও নিজেদের জমি শক্ত করার চেষ্টা করছে গেরুয়া শিবির। সাম্প্রতিক কালে দেখা গিয়েছে, বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকারের হাত ধরে বিভিন্ন দল থেকে বহু মানুষ যোগ দিয়েছেন বিজেপিতে। এবার ঘটল উলটপুরাণ নদিয়ার দত্তফুলিয়াতে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করলেন প্রায় ৩০০ জন কর্মী-সমর্থক।

শনিবার সন্ধ্যায় পঞ্চায়েতের ৮৯/১৮৪ নম্বর বুথ থেকে বিজেপি সদস্য সুকেশ বিশ্বাস এবিভিপি, যুব মোর্চা, মহিলা নেতা-কর্মীসহ প্রায় ৩০০ জন বিজেপি কর্মী সমর্থক তৃণমূলে যোগদান করলেন বিধায়ক সমীর পোদ্দারের হাত ধরে। দীর্ঘদিন ধরে রানাঘাট উত্তর-পূর্ব বিধানসভায় বিজেপির কর্মী-সমর্থকরা দাবি করে আসছিলেন যে, সিপিএম থেকে আসা হার্মাদ বাহিনী আজ বিজেপিতে বড় বড় পদ পাচ্ছে। কিন্তু প্রকৃত যারা বিজেপি করেন, তারা কেউ তেমন জায়গা করতে পারেননি। অপরদিকে বিভিন্ন রকম গোষ্ঠীকোন্দল মাথাচাড়া দিয়ে উঠছিল। তাই বেশ কিছুদিন ধরে ধাপে ধাপে বহু কর্মী-সমর্থক বিজেপি থেকে তৃণমূলে যোগ দেন।  

এছাড়াও আমফান এবং করোনাকে কেন্দ্র করে সাধারণ মানুষের পাশে বিজেপি’র কোনও নেতা-কর্মীকেই সে ভাবে দেখা যায়নি, যতটা দেখা গিয়েছে বিধায়ক সমীর পোদ্দারকে। এ বিষয়ে সুকেশবাবু জানান, ‘আমার থেকেও অসুবিধা বেশি হচ্ছিল যারা আমাকে ভোট দিয়ে জিতিয়েছেন তাদের। সেই সমস্ত বিজেপি সৈনিকদের উপেক্ষা করেই অন্যান্য দল থেকে সদ্য যোগ দেওয়াদের গুরুত্ব বেশি বিজেপি দলে। তাই সকলের সমবেত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তৃণমূলে যোগদান করলাম।‘