Sidhu Moose Wala: বন্দুক হাতে তাণ্ডব! মুসে ওয়ালার ‘খুনি’র ভিডিও ভাইরাল

68

মহানগর ডেস্ক: পঞ্জাবি গায়ক (Punjabi Singer) তথা কংগ্রেস নেতা সিধু মুসে ওয়ালা (Sidhu Moose Wala) হত্যাকাণ্ডের এবার সামনে এল একটি ভিডিও ফুটেজ। যেখানে দেখা যাচ্ছে, মুসে ওয়ালাকে খুন করার পর অভিযুক্তরা হাতে পিস্তল নিয়ে উন্মাদনা প্রকাশ করছেন। ওই ফুটেজে হত্যাকাণ্ডের মূল অভিযুক্ত অঙ্কিত সিরসা, প্রিয়ব্রত, কপিল, শচীন ভিওয়ানি এবং দীপককে উপস্থিত থাকতে দেখা গিয়েছে।

আরও পড়ুন: মুখ্যমন্ত্রীর মধ্যে রানী রাসমণির ছায়া দেখতে পাচ্ছি: বিধায়ক বিশ্বজিৎ দাস

দিল্লি পুলিশ রবিবার রাতে মুসে ওয়ালার খুনে আরও দুই ব্যক্তি তথা অঙ্কিত এবং শচীন ভিওয়ানিকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতার হওয়া অভিযুক্তদের কাছ থেকে পাওয়া গিয়েছে একটি ভিডিও ফুটেজ। যেখানে দেখা যাচ্ছে, অভিযুক্তরা ৫ জন উপস্থিত ছিল একটি গাড়িতে। গাড়ির পিছনের সিটে বসা ৩ জনের হাতে দুটি করে পিস্তল ছিল। এছাড়াও আরও দুজনের মধ্যে একজন রয়েছেন চালকের আসনে। আর একজন বসেছেন চালকের পাশে আসনে, যিনি এই ভিডিওটি তুলছিলেন। যা পুলিশের তরফ থেকে সংবাদ সংস্থার হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। এই ভিডিওটি দেখার পরে সাধারণ মানুষের মধ্যে তৈরি হয়েছে আতঙ্ক।

কিভাবে গ্যাংস্টারের লোকেরা সকলের সামনে ওপেন বন্দুক নিয়ে ঘুরে বেড়াতে পারে আজকের যুগে দাড়িয়ে? তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। তবে এই ভিডিওটি কোন সময়কার সিধুকে খুন করার সময়ের নাকি তার আগের? সে বিষয়ে পুলিশের তরফ থেকে নিশ্চিত করে কিছু বলা হয়নি। তবে জানা গিয়েছে হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত অন্যতম শুটার অঙ্কিতের ফোন থেকে এই ভিডিওটি সংগ্রহ করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, এই ১৮ বছর বয়সী অঙ্কিত লরেন্স বিষ্ণোই এবং গোল্ডি ব্রার গ্যাংস্টার জোটের অন্যতম সদস্য। যে সিধুকে খুন করার জন্য সবচেয়ে বড় ভূমিকা পালন করেছে। কারণ পুলিশ আধিকারিকরা জানতে পেরেছেন সিধুকে সে একাই মোট ছটি গুলি ছুঁড়েছিল।

এদিকে, রবিবার রাতে দিল্লি পুলিশ অঙ্কিতের সঙ্গে শচীন ভিওয়ানিকেও গ্রেফতার করে। হরিয়ানার বাসিন্দা এই ভিওয়ানি রাজস্থানে লরেন্স বিষ্ণোই গ্যাংয়ের অপারেশন পরিচালনা করে। সে রাজস্থানের চুরুতে একটি মামলায় ওয়ান্টেড অপরাধী হিসেবে পুলিশের খাতায় উঠে রয়েছে। সিধু মুসে ওয়ালা খুনের ঘটনায় এর আগেই অভিযুক্ত তিনজনকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। এই রবিবার আরও দুজনকেই গ্রেফতার করা হয়। অর্থাৎ মুসে ওয়ালা খুনে মোট এখনও পর্যন্ত পাঁচজনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে পুলিশ।