Home Featured India vs Bangaldesh T20 World Cup 2022: কোহলির বিরুদ্ধে ভুয়ো ফিল্ডিংয়ের অভিযোগ নুরুলের! ৫ রান পেনাল্টি পেলেই ম্যাচ জিততেন শাকিবরা!

India vs Bangaldesh T20 World Cup 2022: কোহলির বিরুদ্ধে ভুয়ো ফিল্ডিংয়ের অভিযোগ নুরুলের! ৫ রান পেনাল্টি পেলেই ম্যাচ জিততেন শাকিবরা!

by Silpika Chatterjee

মহানগর ডেস্ক: ভারতের কাছে ৫ রান পেনাল্টি পেলেই জয় হতো বাংলাদেশের। কারণ আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী বল ছোঁড়ার মিথ্যা নাটক করলে বিপক্ষ দল ৫ রান পেনাল্টি পায়। সেটাই করেছিল বিরাট কোহলি।
বুধবার ভারতের কাছে ম্যাচ হেরে কোহলির বিরুদ্ধে ‘ফেক ফিল্ডিং’এর মত গুরুতর অভিযোগ তুলল বাংলাদেশের উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান নুরুল হাসান। এমনকি তাদের অভিযোগ যথার্থ হলে অ্যাডিলেডে ম্যাচ জিতে যাওয়া উচিত ছিল বাংলাদেশের বলে দাবি শাকিবদের।

বাংলাদেশের তারকার দাবি, ফিল্ড আম্পায়ারদের পদক্ষেপ ছাড়াই কোহলি বল ছোঁড়ার নাটক করে। ঘটনাটি ঘটে বাংলাদেশ ইনিংসের সপ্তম ওভারে। তখন অক্ষর প্যাটেলের বলে অফ-সাইডে শট নেন লিটন দাস। নন-স্ট্রাইকার প্রান্তে তখনও শান্ত নাজমুল হোসেন। অপরদিকে অর্শদীপ সিং সে সময় বাউন্ডারি লাইন থেকে বল ধরে উইকেটকিপার প্রান্তে ছুঁড়ে দেন। কিন্তু সেই বল পয়েন্টে ফিল্ডিং করা কোহলির পাশ দিয়ে যাওয়ার সময়, বিরাট বল ধরে নন-স্ট্রাইকার প্রান্তে থ্রো করার অভিনয় করেন বলে দাবি করে বাংলাদেশ।

কী বলছে আইসিসির নয়িম:-আইসিসির নিয়মে যদিও প্রকৃতই এমন ঘটনাকে ‘আনফেয়ার প্লে’ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। ব্যাটসম্যানকে বিভ্রান্ত করার জন্য কোনও ফিল্ডার বল হাতে না থাকা সত্ত্বেও বল ছোঁড়ার নাটক করলে সেই ডেলিভারিটিকে ডেড-বল হিসেবে ঘোষণা করতে পারেন আম্পায়াররা। শাস্তি হিসেবে ব্যাটিং দলকে ৫ রান উপহার দেওয়ারও নিদান রয়েছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থার নিয়মে।

ঠিক কী বলেছেন নুরুল:-ম্যাচ শেষে সাংবাদিকদের নুরুল বলেন, ‘তারা সবাই দেখেছেন মাঠ ভিজে থাকার প্রভাব পড়েছে ম্যাচে। সর্বোপরি ম্যাচে ফেক থ্রোয়েরও ঘটনা ঘটে, যেখানে তাদের পেনাল্টির ৫ রান পাওয়া উচিত ছিল। কিন্তু এমন কিছুই ঘটেনি।’

ম্যাচের ফলাফল:-বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচে বাংলাদেশ ডাকওয়ার্থ-লুইস নিয়মে ভারতের কাছে ৫ রানেই পরাজিত হয় বাংলাদেশ। টস হেরে শুরুতে ব্যাট ধরে ভারত নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটের বিনিময়ে ১৮৪ রান তোলে। পালটা ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশ ৭ ওভারে উইকেটবিহীন ৬৬ রান তুলেই চুপ হয়ে যায়। কারণ বৃষ্টির জন্য ম্যাচ সাময়িকভাবে বন্ধ থাকে। পুনরায় খেলা শুরু হলে বাংলাদেশের সামনে জয়ের জন্য পরিবর্তিত লক্ষ্যমাত্রা দাঁড়ায় ১৬ ওভারে ১৫১ রানের। শেষমেশ বাংলাদেশ ১৬ ওভারে ৬ উইকেটে ১৪৫ রানে আটকে যায়।

You may also like