Home National অল্প বিনিয়োগেই ডবল টাকা ! জেনে নিন পোস্ট অফিসের ৫ টি সেরা স্কিম  

অল্প বিনিয়োগেই ডবল টাকা ! জেনে নিন পোস্ট অফিসের ৫ টি সেরা স্কিম  

by Shreya Maji
1 views

মহানগর ডেস্ক: পোস্ট অফিস হলো টাকা জমাবার একটি দারুণ প্রতিষ্ঠান।অনেকেরই টাকা জমাবার প্রথম পছন্দ পোস্ট অফিস। সরকারি সুরক্ষা সহ দারুণ রিটার্ণের জন্য পোস্ট অফিস বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে।আপনি খুব কম সময় টাকা ডবল করতে পারবেন এর বেশ কয়েকটি স্কিমের সাহায্যে।

পোস্ট অফিস অনেকগুলি বিশেষ স্কিম চালিয়ে থাকে গ্রাহকদের জন্য।এই প্রকল্পগুলিতে একাধিক সুবিধা দিয়ে থাকে পোস্ট অফিস।সরকারের অধীনে আসা এই প্রকল্পগুলি থেকে সুরক্ষিত ও নিশ্চিত রিটার্ন পাওয়া যায়।সঙ্গে পাওয়া যাবে আয়কর আইনের 80C অনুযায়ী কর সুবিধাও।আসুন তবে জেনে নেওয়া যাক এই রকম 5টি পোস্ট অফিস স্কিম সম্পর্কে।

১.পোস্ট অফিস টাইম ডিপোজিট অ্যাকাউন্ট:

বিভিন্ন মেয়াদ রয়েছে পোস্ট অফিস টাইম ডিপোজিটের।এতে ১০০০ টাকা সর্বনিম্ন বিনিয়োগ এবং কোনও উচ্চ সীমা নেই।বার্ষিক সুদ জমা হয় অ্যাকাউন্টধারীর সেভিংস অ্যাকাউন্টে।5-বছরের টাইম ডিপোজিট-এর ক্ষেত্রে কর ছাড় পাওয়া যায় ১৯৬১ সালের আয়কর আইনের ধারা 80C অনুযায়ী।

২.পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড

একটি দীর্ঘমেয়াদী বিনিয়োগ পরিকল্পনা হলো পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড।বেতনভোগী বিনিয়োগকারীদের মধ্যে পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড খুব জনপ্রিয়। বার্ষিক চক্রবৃদ্ধি হারে দেওয়া হয়ে থাকে পিপিএফ-এর সুদের হার। ফলে রিটার্নও বেশি পাওয়া যায় এই প্রকল্পে।বিনিয়োগটি 80C-এর অধীনে ছাড়ের জন্য যোগ্য। বিনিয়োগে কোনও ঝুঁকি নেই পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ডে।কারণ এটি ভারত সরকারের সমর্থিত ফান্ড।এতে বিনিয়োগ করা যায় ৫০০ টাকা থেকে ১.৫ লাখ টাকা পর্যন্ত।

৩. ন্যাশনাল সেভিংস স্কিম:

৫ বছর ন্যাশনাল সেভিং স্কিমের মেয়াদ।এই স্কিমে বিনিয়োগের ঝুঁকি খুবই কম এটি সরকারি স্কিম হওয়ায়।কোনও উচ্চ সীমা নেই ন্যাশনাল সেভিংস স্কিম বিনিয়োগের।তবে বিনিয়োগের সর্বনিম্ন সীমা হল ১০০০ টাকা৷ “ন্যাশনাল সেভিংস স্কিম” ভালো রিটার্ন ও টাকার নিশ্চিত সুরক্ষার জন্য অনেকের কাছেই প্রথম পছন্দ টাকা জমাবার।

৪.সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিম

সর্বনিম্ন এবং সর্বোচ্চ বিনিয়োগের সীমা যথাক্রমে ১,০০০ টাকা এবং ১৫ লাখ টাকা সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিম অনুযায়ী।এতে বিনিয়োগ করতে পারেন ৫৫ বছর থেকে ৬০ বছরের ব্যক্তিরা।স্কিমটির একটি পাঁচ বছরের মেয়াদ রয়েছে যা অতিরিক্ত তিন বছরের জন্য বাড়ানো যায়।

৫. সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনা

একটি কন্যা শিশুর নামে খোলা যেতে পারে একটি সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনা অ্যাকাউন্ট। মেয়েটি অ্যাকাউন্টের মালিকানা পায় ১৮ বছর বয়স হলে। এই প্ল্যানটি ধারা 80C এর অধীনে কর ছাড় দেয়।স্কিমটিতে সর্বনিম্ন ২৫০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ১,৫০,০০০ টাকা জমা দেওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছে প্রতি আর্থিক বছরে।

উল্লেখ্য,পোস্ট অফিস সম্প্রতি একটি সরকারি প্রকল্প নিয়ে এসেছে।এই প্রকল্পে আপনি ৩৫  লাখ টাকা পর্যন্ত পেতে পারেন বিনিয়োগ করলে।এই স্কিমে আপনি যদি নিয়মিত বিনিয়োগ করেন, তাহলে আপনি ৩১ লাখ থেকে ৩৫ লাখ টাকার সুবিধা পাবেন ম্যাচুরিটির সময়।

গ্রাম সুরক্ষা স্কিম

এই স্কিমের নাম হল গ্রাম সুরক্ষা স্কিম। আপনি ৩৫ লাখ টাকা পর্যন্ত পেতে পারেন এই স্কিমে বিনিয়োগ করে। ইন্ডিয়া পোস্ট গ্রাহকদের জন্য শুরু করেছে সম্প্রতি এই স্কিমটি। এই সুরক্ষা পরিকল্পনা এমন একটি বিকল্প যেখানে আপনি কম ঝুঁকি যুক্ত বিনিয়োগে ভালো রিটার্ন পেতে পারেন।

জেনে নিন বিনিয়োগের নিয়ম:

১.এই স্কিমে বিনিয়োগ করতে পারেন ১৯ থেকে ৫৫ বছরের মধ্যে যে কোনও ভারতীয় নাগরিক।

২.এই প্ল্যানের প্রিমিয়াম পেমেন্ট মাসিক, ত্রৈমাসিক, অর্ধবার্ষিক বা বার্ষিক করা যেতে পারে।

৩.আপনি ৩০ দিনের একটি গ্রেস পিরিয়ড পাবেন প্রিমিয়াম পরিশোধ করার জন্য।

৪.ন্যূনতম বিমার পরিমাণ ১০,০০০ টাকা থেকে ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত হতে পারে এই স্কিমের অধীনে।

You may also like

Mahanagar bengali news

Copyright (C) Mahanagar24X7 2024 All Rights Reserved