Home National Bastar, Chhattisgarh: ৫ দিন ধরে হাসপাতালে বিদ্যুৎ নেই, অগত্যা টর্চের আলোয় চলছে রোগী চিকিৎসা

Bastar, Chhattisgarh: ৫ দিন ধরে হাসপাতালে বিদ্যুৎ নেই, অগত্যা টর্চের আলোয় চলছে রোগী চিকিৎসা

by Mahanagar Desk
2 views

মহানগর ডেস্ক, ছত্তিশগড়: গত পাঁচদিন ধরে ছত্তিশগড়ের বস্তার জেলার একটি সরকারি হাসপাতালে ইলেকট্রিক বিদ্যুৎ নেই। চিকিৎসকদের ফোনের ফ্ল্যাশলাইটের সাহায্যে আহত রোগীদের চিকিৎসা চলছে। জানা গিয়েছে, দিন কয়েক আগেই শর্ট-সার্কিটের কারণে হাসপাতালে আগুনে লেগে যায়। তারপর থেকেই বিল্ডিংটিতে বিদ্যুৎ নেই। শুক্রবার সন্ধ্যায় কিলেপালে ট্রাক ও বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ২ জন নিহত ও ১৮ জন আহত হয়েছেন। আহতদের তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে জানা যায় যে, হাসপাতালে ৫ দিন ধরে বিদ্যুৎ নেই। আহতদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক এবং উন্নত চিকিৎসার জন্য ডিমরাপাল মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছে।

এমনকি সূত্রের খবর, দুর্ঘটনার সময়ে অ্যাম্বুলেন্স ডাকা সত্ত্বেও দুর্ঘটনা স্থলে হাসপাতালের অ্যাম্বুলেন্স পৌঁছায়নি। এরপর আহতদের হাসপাতালের কাছে থাকা চিত্রকুট বিধায়ক রাজমান বেঞ্জামিন এবং বস্তানার গ্রামের তহসিলদারের গাড়িতে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এই দুর্ঘটনায় আহত যাত্রীদের পরিবার রীতিমতো বিক্ষোভ শুরু করেছে। এবং অবহেলার জন্য দায়ী কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন তাঁরা। স্থানীয় গ্রামবাসীরাও তাঁদের সমর্থন করেছেন। পুরো বস্তানার ব্লকের এটিই একমাত্র বড় হাসপাতাল, যার উপর আশেপাশের সমস্ত গ্রামবাসী নির্ভর করে।

বিধায়ক রাজমান বেঞ্জামিন বলছেন, যে তিনি বিদ্যুৎ বিভাগকে বিকল্প ব্যবস্থা করার এবং হাসপাতালের সমস্ত সমস্যা অবিলম্বে সমাধান করার নির্দেশ দিয়েছিলেন। অন্যদিকে PWD-এর বৈদ্যুতিক প্রকৌশল বিভাগের আধিকারিক অজয় ​​কুমার টেমবার্নকে এই বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে, তিনি বলেন, শর্ট সার্কিট ঘটনার পরপরই ভবনটিতে প্রাথমিক মেরামত করা হয়েছিল। এলাকার ব্লক মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ অরিজিৎ চৌধুরী জানিয়েছেন, মেরামতের জন্য মাসখানেক আগে বিদ্যুৎ দপ্তরে চিঠি পাঠানো হয়েছিল। চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছিল যে, বৃষ্টির কারণে দেয়ালে স্যাঁতসেঁতেতা রয়েছে, তার জন্যই শর্ট সার্কিটের সমস্যা হয়। ডাঃ চৌধুরী এখন হাসপাতালের জন্য জেনারেটর দাবি করে বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কাছে চিঠি পাঠিয়েছেন।

You may also like

Mahanagar bengali news

Copyright (C) Mahanagar24X7 2024 All Rights Reserved