Home National বালু জেলবন্দি, হাবড়ায় ভোটে বালুর জায়গা পূরণে ৭ তৃণমূল নেতার কমিটি!

বালু জেলবন্দি, হাবড়ায় ভোটে বালুর জায়গা পূরণে ৭ তৃণমূল নেতার কমিটি!

by Sibapriya Dasgupta
28 views

মহানগর ডেস্ক : গত ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনে বারাসাত লোকসভা কেন্দ্রে কাকলী ঘোষ দস্তিদার জিতলেও জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের বিধানসভা হাবড়ায় প্রায় ১৯ হাজার ভোটে এগিয়ে ছিল বিজেপি। সেই সময় আক্ষেপ করে দলের অভ্যন্তরে বালু বলেছিলেন, তিনি আর ২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থী হবেন না। তবে দল সেই দাবিকে মান্যতা দেয়নি, বালুকে হাবড়ায় তৃণমূল প্রার্থী করা হয় এবং বিজেপির রাহুল সিনহাকে জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বা বালু পরাজিত করেন। এবারের লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল ২০১৯ -এর লোকসভা নির্বাচনের পুনরাবৃত্তি চাইছেন না। তাই জেলবন্দি বালুর কেন্দ্রে তাঁর অভাবে সাত সদস্যের কমিটি গড়ে দিয়েছে তৃণমূল নেতৃত্ব। এই কমিটি গঠন করা হয়েছে স্থানীয় নেতাদের নিয়ে। আগামী মঙ্গলবার এই কমিটির প্রথম বার বৈঠকে বসবে বলে তৃণমূল সূত্রে খবর। এই কমিটির চেয়ারম্যান করা হয়েছে, হাবড়া পুরসভার চেয়ারম্যান নারায়ণচন্দ্র সাহাকে। আহ্বায়ক হয়েছেন সীতাংশু দাস ও জ্যোতি চক্রবর্তী। এ ছাড়াও কমিটিতে রয়েছেন হাবড়া-১ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি নেহাল আলি, হাবড়া পুরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান নীলিমেশ দাস, অজিত সাহা, তপতী দত্ত।

বালু রেশন দুর্নীতিকাণ্ডে গত অক্টোবর মাসের শেষ সপ্তাহে ইডির হাতে গ্রেফতা হন। সেই ঘটনার পরেও তাঁকে মন্ত্রিত্ব থেকে সরাননি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু ১৬ ফেব্রুয়ারি আচমকা রাজভবন থেকে জানানো হয়, রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস জ্যোতিপ্রিয়র হাতে থাকা বন দফতরের দায়িত্ব দিয়েছেন প্রতিমন্ত্রী বিরবাহা হাঁসদাকে। অনুষ্ঠানিক ভাবে ওই দিন থেকে মন্ত্রিপদে নেই বালু। এ বারের লোকসভা নির্বাচনের আগে জ্যোতিপ্রি মল্লিকের জেল থেকে ফেরার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। তৃণমূল নেতৃত্ব কোনও ভাবেই আর ২০১৯ সালের লোকসভা ভোটের পুনরাবৃত্তি চাইছেন না। তাই ভোটঘোষণার অনেক আগেই হাবড়ায় কমিটি গঠন করে দায়িত্ব বণ্টন করে দেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ২০০১ এবং ২০০৬ সালে গাইঘাটা বিধানসভা থেকে জিতে বিধায়ক ছিলেন বালু। কিন্তু আসন পুনর্বিন্যাসের কারণে ২০১১ সালে গাইঘাটা আসনটি তফসিলি জাতির জন্য সংরক্ষিত হয়ে যায়। তখন হাবড়ায় প্রার্থী হন জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। তারপর থেকে টানা তিন বার হাবড়া থেকে জয়ী হয়ে বিধানসভার সদস্য হিসেবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্ত্রিসভায় জায়গা করে নেন বালু। গত অক্টোবর মাসের শেষ সপ্তাহ থেকে জ্যোতিপ্রিয় রেশন দুর্নীতিকাণ্ডে জেলবন্দি। তাই এ বার তাঁর দায়িত্ব স্থানীয় নেতাদের মধ্যে বন্টন করে কমিটি গঠন করে লোকসভা ভোটের জন্য প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছ তৃণমূল দল।

বারাসত লোকসভায় ভোট সপ্তম দফায় অর্থাৎ ১ জুন। এবার হাবড়া বিধানসভা নিয়ে যথেষ্ট সাবধানি তৃণমূল নেতৃত্ব। বারাসাত লোকসভার অন্তর্গত হাবড়া বিধানসভায় মতুয়া এবং উদ্বাস্তু ভোটারদের আধিক্য রয়েছে। সিএএ কার্যকর হওয়ার পর বিজেপি নেতৃত্ব বারাসত লোকসভা আসনটিকে তাদের পক্ষে ইতিবাচক হিসাবে দেখছে। তাই বনগাঁ দক্ষিণ থেকে বিজেপির বিধায়ক মতুয়া সমাজের স্বপন মজুমদারকে এবার বারাসত লোকসভায় প্রার্থী করেছে বিজেপি।এই পরিস্থিতিতে বিজেপির এই কৌশলী চালের মোকাবিলায় স্থানীয় নেতাদের ওপর বেশি গুরুত্ব দিয়ে হাবড়া লোকসভায় বিজেপির জয়ের স্বপ্নকে বানচাল করে দিতে চায় তৃণমূল। এখন দেখার ২০২৪-এর লোকসভা নির্বাচনে হাবড়া বিধানসভার ফলে ২০১৯ -এর ফলের পুনরাবৃত্তি হয় কি না, না কি তৃণমূল এবার বারাসাত লোকসভা নির্বাচনে হাবড়া বিধানসভায় ২০১৯-এর পরাজয়ের গ্লানি থেকে মুক্ত হতে পারে!

You may also like

Mahanagar bengali news

Copyright (C) Mahanagar24X7 2024 All Rights Reserved