Home National কংগ্রেস-সপা ক্ষমতায় এলে রাম মন্দিরের উপর বুলডোজার চালাবে, সতর্ক করলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী

কংগ্রেস-সপা ক্ষমতায় এলে রাম মন্দিরের উপর বুলডোজার চালাবে, সতর্ক করলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী

মোদীর  দাবি আদিত্যনাথের কাছ থেকে শেখা উচিত কোথায় বুলডোজার ব্যবহার করা  হয়।   

by Shreya Maji
61 views

মহানগর ডেস্ক:  দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযানের জন্য বুলডোজার বাবা নামে পরিচিত উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। এই নিয়ে দেশজুড়ে কম চর্চা হয় না। বুলডোজারের কথা আগেও বিজেপি নেতাদের মুখে শোনা গিয়েছে। বিরোধীরা এই নিয়ে কম কটাক্ষকরেনি।  এবার বিরোধীদের কটাক্ষ করতেই বুলডোজার শব্দের ব্যবহার করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রধানমন্ত্রী  শুক্রবার দাবি করেছেন যে কংগ্রেস এবং সমাজবাদী পার্টি ক্ষমতায়  এলে  রাম মন্দিরের উপর বুলডোজার চালাবে। শুধু এটাই নয়ে সেই সঙ্গেই খোঁচা দিয়ে এটাও বলেছেন রাম মন্দিরের পরিবর্তে কোথায় বুলডোজার ব্যবহার করা উচিত সে বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের কাছ থেকে শিক্ষা নিতে।

শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী যোগী রাজ্যের বারাবাঙ্কি, ফতেহপুর ও হামিরপুরে জনসভায় ভাষণ দেন।  উত্তর প্রদেশে নির্বাচনী সমাবেশে ভাষণ দেওয়ার সময়, মোদী ফের একবার ভবিষ্যদ্বাণী করে বলেছেন,  লোকসভা নির্বাচনে হ্যাটট্রিক করে তার সরকার ফিরে আসতে চলেছে।  নমোর মোটে  কংগ্রেসের “সম্মান বাঁচাতে” মাত্র ৫০টি আসন পাওয়ার লক্ষ্য ছিল। বারাবাঙ্কিতে ইন্ডিয়া জোটকে আক্রমণ করে বলেছেন,  অস্থিতিশীলতা তৈরির জন্য মাঠে নেমেছে। প্রধানমন্ত্রীর কথায়,  “নির্বাচন যত এগিয়েছে, এই ‘ ইন্ডিয়া জোট’   তাসের প্যাকেটের মতো ভেঙে পড়তে শুরু করেছে।”  তিনি অযোধ্যা মন্দির ইস্যুতে কংগ্রেস ও সমাজবাদী পার্টিকে কটাক্ষ করেন। বলেন,  “একজন সিনিয়র  সমাজবাদী পার্টির নেতা রাম নবমীর দিন বলেছিলেন যে রাম মন্দির অকেজো। একই সময়ে, কংগ্রেস রাম মন্দির নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্তকে উল্টানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে। যদি  সপা এবং কংগ্রেস ক্ষমতায় আসে, তারা রাম ললাকে তাঁবুতে ফেরত পাঠাবে এবং মন্দিরকে বুলডোজ করবে,। এর পরেই মোদীর  দাবি আদিত্যনাথের কাছ থেকে শেখা উচিত কোথায় বুলডোজার ব্যবহার করা  হয়।

উল্লেখ্য, আদিত্যনাথ সরকারের বিরুদ্ধে অভিযুক্ত অপরাধীদের সম্পত্তি বেআইনিভাবে ধ্বংস করার জন্য বুলডোজার ব্যবহার করার অভিযোগ রয়েছে এবং বিরোধীরা দাবি করেছে যে শিকার বেশিরভাগই মুসলিম। এই নিয়ে কম তর্ক বিতর্ক হয়নি। তবে এই অসব নিয়ে মাথা ব্যাথা করতে নারাজ বিজেপি এবং যোগী সরকার। এদিন বিরোধীদের নিশানা করে নমো আরও বলেন, ” সপা এবং কংগ্রেস তুষ্টির কাছে আত্মসমর্পণ করেছে। এবং যখন মোদী দেশের কাছে তাদের সত্য বলে, তারা বলে যে মোদী হিন্দু-মুসলিম বিভাজন তৈরি করছেন। এই লোকেরা যে ভোটব্যাঙ্কের পিছনে ছুটছে   সেই  সত্য এখন সকলে বুঝতে শুরু করেছে।”

মোদী সরকারের কাজের কথাও এদিন তুলে ধরেন নমো । বলেন, “আমাদের মা ও বোনেরা তিন তালাকের আইনে খুশি এবং বিজেপিকে ক্রমাগত আশীর্বাদ করছেন।  সংবিধান যখন তৈরি হয়েছিল, তখন গণপরিষদ সিদ্ধান্ত নিয়েছিল যে ধর্মের ভিত্তিতে কোনও সংরক্ষণ থাকবে না ।” হামিরপুরে, প্রধানমন্ত্রী তার অভিযোগের পুনরাবৃত্তি  করে বলেন,  বিরোধীরা জনগণের সম্পদ মুসলিম সম্প্রদায়ের সদস্যদের দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে। এর পরেই তিনি বলেন, “আজ, আমি আপনাদেরকে  সপা এবং কংগ্রেসের বিরুদ্ধে সতর্ক করতে এসেছি। তারা আপনার ভোট নেবে, কিন্তু ক্ষমতায় আসার পরে, যারা তাদের জন্য ‘ভোট জিহাদ’ করবে তাদের কাছে তারা এই উপহারগুলি বিতরণ করবে।”

 

You may also like

Mahanagar bengali news

Copyright (C) Mahanagar24X7 2024 All Rights Reserved