Home National নির্বাচনী বন্ড নিয়ে কমিশনের নতুন তথ্য প্রকাশ্যে, জানা গেল কোন দলের কত প্রাপ্তি

নির্বাচনী বন্ড নিয়ে কমিশনের নতুন তথ্য প্রকাশ্যে, জানা গেল কোন দলের কত প্রাপ্তি

by Sibapriya Dasgupta
32 views

মহানগর ডেস্ক : ইলেক্টোরাল বন্ডের তথ্য যত প্রকাশ্যে আসছে স্বচ্ছ ভারতের ছবিটা ততোই যেন অস্বচ্ছ হয়ে পড়ছে। রবিবার জাতীয় নির্বাচন কমিশন ইলেক্টোরাল বন্ড নিয়ে নতুন তথ্য প্রকাশ করল। তাতে স্পষ্ট হয়ে গেল <span;>নির্বাচনী বন্ড থেকে কোন রাজনৈতিক দল, কতটা লাভবান হয়েছে। এর ফলে প্রশ্ন উঠে গেল এই দলগুলোর স্বচ্ছতা নিয়ে।ংং কমিশন প্রকাশিত নতুন এই তথ্যে জানা যাচ্ছে ২০১৮ সালে নির্বাচনী বন্ড চালু হওয়ার পর থেকে কোন দল কত টাকা নিজেদের অ্যাকাউন্টে নিয়েছে। এই তথ্য বলছে, ইলেক্টোরাল বন্ড থেকে টাকা পাওয়ার তালিকার শীর্ষে রয়েছে বিজেপি। নির্বাচনী বন্ড ভাঙিয়ে তারা পেয়েছে প্রায় সাত হাজার কোটি টাকা। তার পরই আছে পশ্চিমবঙ্গের শাসকদল তৃণমূল। তৃতীয় স্থানে রয়েছে কংগ্রেস। আর চার নম্বরে রয়েছে কে চন্দ্রশেখর রাওয়ের দল ভারত রাষ্ট্র সমিতি বা বিআরএস।

জাতীয় নির্বাচন কমিশন রবিবার এই সংক্রান্ত একটি নতুন বিবৃতি প্রকাশ করে<span;> জানিয়েছে, দেশের সর্বোচ্চ আদালতের রেজিস্ট্রি থেকে প্রাপ্ত তথ্যই কমিশন তাদের ওয়েবসাইটে আপলোড করেছে। সুপ্রিম কোর্ট একটি মুখবন্ধ খামে নির্বাচনী বন্ড সংক্রান্ত এই তথ্য কমিশনকে দেয়। রাজনৈতিক দলগুলি বন্ড সংক্রান্ত যে তথ্য মুখবন্ধ খামে সুপ্রিম কোর্টে জমা দিয়েছিল সেই তথ্যই এবার প্রকাশ্যে আনা হল। উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার কমিশন যে বন্ড সংক্রান্ত তথ্য প্রকাশ করেছিল, তা ছিল ২০১৯ সালের এপ্রিল থেকে ২০২৪ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারির মধ্যে কত বন্ড কেনা-ভাঙানো হয়েছে। সেই তথ্য এসবিআই তুলে দিয়েছিল কমিশনের হাতে। আর রবিবার রাজনৈতিক দলগুলির দেওয়া তথ্যই প্রকাশ্যে আনা হল।

এই তথ্য বলছে, ২০১৮ সাল থেকে নির্বাচনী বন্ডের মাধ্যমে বিজেপি পেয়েছে ৬ হাজার ৯৮৬ কোটি ৫০ লাখ টাকা। তার পরেই তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা তৃণমূল পেয়েছে ১ হাজার ৩৯৭ কোটি টাকা। কংগ্রেসের তহবিলে গিয়েছে ১ হাজার ৩৩৪ কোটি টাকা। আর বিআরএস নির্বাচনী বন্ড ভাঙিয়ে পেয়েছে ১ হাজার ৩২২ টাকা।

এই তথ্য থেকে জানা যাচ্ছে, ইলেক্টোরাল বন্ড কেনার তালিকার শীর্ষে রয়েছে বিতর্কিত লটারি ব্যবসায়ী মার্টিন সান্তিয়াগোর সংস্থা “ফিউচার গেমিং অ্যান্ড হোটেল সার্ভিসেস”। এই সংস্থাটি কিনেছে মোট ১,৩৬৮ কোটি টাকার ইলেক্টোরাল বন্ড। রবিবারে প্রকাশিত তথ্যে দেখা যাচ্ছে, সান্তিয়াগোর কেনা বন্ড ভাঙিয়ে সবচেয়ে বেশি টাকা পেয়েছে তামিলনাড়ুর ডিএমকে। এই সংস্থার কেনা বন্ড থেকে প্রায় ৩৭ শতাংশ অর্থই পেয়েছে ডিএমকে। যার পরিমাণ ৫০৯ কোটি টাকা। এ ছাড়াও “মেঘা ইঞ্জিনিয়ারিং” কোম্পানি থেকে এমকে স্ট্যালিনের দল ১০৫ কোটি টাকা পেয়েছে। পাশাপাশি “সান টিভি” এবং “ইন্ডিয়া সিমেন্ট” থেকে ডিএমকের ঝুলিতে যথাক্রমে ১০০ কোটি এবং ১৪ কোটি টাকা ঢুকেছে।

ইলেকক্টোরাল বন্ড থেকে ওড়িশার শাসক দল বিজু জনতা দল বা বিজেডি পেয়েছে ৯৪৪ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা। অন্ধ্রপ্রদেশের শাসকদল ওয়াইএসআর কংগ্রেস পেয়েছে ৪৪২ কোটি ৮০ লক্ষ টাকা। জেডিএস দলও বন্ড থেকে পেয়েছে ৮৯ কোটি ৭৫ লক্ষ টাকা। তার মধ্যে ৫০ কোটি টাকাই এসেছে “মেঘা ইঞ্জিনিয়ারিং” কোম্পানির থেকে। তালিকায় থাকা টিডিপি পেয়েছে ১৮১ কোটি ৩৫ লক্ষ টাকা। শিবসেনা,আরজেডি, সমাজবাদী পার্টির মতো দলগুলি পেয়েছে যথাক্রমে ৬০ কোটি ৪০ লক্ষ, ৫৬ কোটি, ১৪ কোটি ০৫ লক্ষ টাকা।

জাতীয় নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গিয়েছে, শুনানি চলাকালীন নির্বাচনী বন্ড সংক্রান্ত যা যা তথ্য মুখবন্ধ খামে সুপ্রিম কোর্টে জমা দিয়েছিল রাজনৈতিক দলগুলি, রবিবার সেই তথ্যই তারা প্রকাশ্যে এনেছে। এই তথ্যে বন্ড কেনার তারিখ, কত সংখ্যক বন্ড কে কিনেছে সেই সংখ্যা, স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার কোন কোন শাখা থেকে বন্ড কেনা হয়েছিল, কবে সেই বন্ড কোন রাজনৈতিক দলগুলো ভাঙিয়েছে সেই সংক্রান্ত পূর্ণাঙ্গ তথ্য রয়েছে কমিশনের দেওয়া রবিবারের নতুন নথিতে।

You may also like

Mahanagar bengali news

Copyright (C) Mahanagar24X7 2024 All Rights Reserved