Home National “ভোটে লড়ার মতো অর্থবল নেই, তাই ভোটে লড়ছি না”, নির্মলা সীতারামন

“ভোটে লড়ার মতো অর্থবল নেই, তাই ভোটে লড়ছি না”, নির্মলা সীতারামন

by Sibapriya Dasgupta
20 views

মহানগর ডেস্ক : নরেন্দ্র মোদীর স্বচ্ছ প্রশাসনের মূলে কি বড় আঘাত করলেন তাঁরই মন্ত্রিসভার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সদস্য অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন?  অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি ভোটে লড়বেন না। কেন লড়বেন না সেই কারণ জানাতে গিয়ে ইলেক্টোরাল বন্ডে দেশের মধ্যে সবচেয়ে বেশি টাকা পাওয়া দলের অর্থমন্ত্রী বলেছেন, “আমার যা টাকা, উপার্জন সেটা আমার ব্যক্তিগত। আমি সেই টাকা ভোটে দাঁড়াতে খরচ করব না। আমার অর্থবল নেই। তাছাড়া অন্ধ্রপ্রদেশ বা তামিলনাড়ুতে আমি দাঁড়াব না, কারণ আমি ধর্মীয় পরিচয়ে পরিচিত হয়ে ভোটে দাঁতে পারব না।” অর্থাৎ অর্থমন্ত্রী, যিনি দেশের প্রধানমন্ত্রীর পরেই ধরা হয় অর্থমন্ত্রীকে। সেই ব্যক্তি সাফ জানিয়ে দিলেন তিনি ভোটে দাঁড়াবেন না। তাঁর ভোটে না লড়ার কারণ নিয়ে তিনি যা বললেন তাতে মোদী সরকারকে বড় প্রশ্নের মুখে দাঁড় করিয়ে দিলেন খোদ মোদীর অর্থনৈতিক সংস্কারের প্রণেতা  ভারতের অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন।

নির্মলা সীতারামন নরেন্দ্র মোদীর কিচেন ক্যাবিনেটের সদস্য। তাঁর স্বামী বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ পরাকলা প্রভাকর বুধবারই বলেছেন, “ইলেক্টোরাল বন্ড দেশে তো বটেই, বিশ্বের সবচেয়ে বড় দুর্নীতি। এরনফল মোদী সরকারের ভুগতে হবে।” স্বামীর এই বক্তব্যের পরই নির্মলা সীতারামন জানিয়ে দিলেন তাঁর কাছে ভোটে লড়ার টাকা নেই। তিনি যা উপার্জন করেছেন সেটা তাঁর ব্যক্তিগত, এই টাকা দিয়ে তিনি ভোটে লড়বেন না। তাহলে কী নির্মলা সীতারামন বিজেপির ইলেক্টোরাল বন্ডের টাকাকে বেআইনি টাকা বলে মনে করছেন? কেন না ভোট লড়ার টাকা তো এই বন্ডের টাকা থেকে বিজেপি প্রার্থীদের দেবে, তাহলে কেন নির্মলা সেই টাকা নিতে চাইছেন না? নির্মলা সীতারামনের এই সিদ্ধান্ত লোকসভা নির্বাচনের মুখে বড় অস্বস্তিতে ফেলে দিল নরেন্দ্র মোদী সরকারকে। এছাারাও নির্মলা জানিয়েছেন, অন্ধ্রপ্রদেশ বা তামিলনাড়ুতে তাঁর লড়তে হলে ধর্মীয় পরিচয়কে গুরুত্ব দিয়ে প্রচার করতে হবে, সেটা যে তাঁর পক্ষে করা সম্ভব নয়, তাও দলকে জানিয়ে দিয়েছেন নির্মলা সীতারামন।

এদিকে নির্মলা সীতারামনের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন সিপিএম নেতা ও রাজ্যসভার সাংসদ বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য। তিনি বলেন, “অর্থমন্ত্রী বুঝেছেন যে বিজেপি ইলেক্টোরাল বন্ড থেকে যে বিপুল পরিমাণ টাকা উপার্জন করেছে সেটা বেআইনি,তাই সেই টাকায় তিনি প্রার্থী হতে না চেয়ে সঠিক কাজই করেছেন।”

তৃণমূল নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার নির্মলার সিদ্ধান্তের প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে ইলেক্টোরাল বন্ডের বিষয়টি যত্নের সঙ্গে এড়িয়ে গিয়ে অন্ধ্রপ্রদেশ ও তামিলনাড়ুতে জাতপাতের বিষয়ে নির্মলার প্রার্থী হতে অনিচ্ছার বিষয়টিকে মান্যতা দিয়েছেন। জয়প্রকাশ বলেছেন, “মোদী যে দেশের ধর্মনিরপেক্ষতাকে নষ্ট করছেন, ধর্ম ও রাজনীতিকে মিলিয়ে ফেলছেন, এবার সেটাই বুঝিয়ে দিলেন নরেন্দ্র মোদীর ক্যাবিনেটের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন।”

You may also like

Mahanagar bengali news

Copyright (C) Mahanagar24X7 2024 All Rights Reserved