Home National “আমি এখন গালি-প্রুফ হয়ে গিয়েছি”, প্রধানমন্ত্রী মোদীর এহেন মন্তব্যের কারণ জানুন

“আমি এখন গালি-প্রুফ হয়ে গিয়েছি”, প্রধানমন্ত্রী মোদীর এহেন মন্তব্যের কারণ জানুন

"আমার কাউকে কিছু বলার দরকার নেই।"

by Shreya Maji
20 views

মহানগর ডেস্ক:  ভাষা বিরাট বড় বিষয়। তবে বর্তমান সময়ে রাজনৈতিক নেতাদের মধ্যে  ভাষণ দেওয়ার সময় শাসক বিরোধীকে  বা বিরোধী শাসকে আক্রমণ করার সময় যে ভাষার ব্যবহার করছে তা চর্চার বিষয় হয়ে উঠেছে। বিরোধীরা  প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে আক্রমণ করার ক্ষেত্রে অনেক সময় কুরুরিকর মন্তব্য করে থাকে।  বিরোধী দলগুলির করা মন্তব্য নিয়েই এবার মুখ খুলেছেন প্রধানমন্ত্রী  নরেন্দ্র মোদী। “আমি এখন গালি-প্রুফ হয়ে গিয়েছি” বললেন নমো

  প্রধানমন্ত্রী  বলেছেন,  “গত  ২৪ বছর ধরে ক্রমাগত  গালি শুনে আসছি। গালি শুনতে শুনতে এখন গালি-প্রুফ হয়ে গিয়েছি।’ এএনআই-এর সঙ্গে   একান্ত সাক্ষাৎকারে, প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেছেন,   বিরোধী দলগুলি “এত হতাশ হয়ে পড়েছে যে এখন গালাগালি করা তাদের প্রকৃতিতে পরিণত হয়েছে”।  মোদী তাঁর বিরুদ্ধে ব্যক্তিগত আক্রমণের প্রশ্নের উত্তরে বলেছেন,  “কে আমাকে ‘মৌত কা সওদাগর’ এবং ‘গান্ডি নলি কা কেইদা’ বলে ডাকে? সংসদে আমাদের দলের সদস্যরা গণনা করে ১০১টি গালিগালাজ করেছে, সুতরাং নির্বাচন হোক বা না হোক, এই লোকেরা (বিরোধী দল) বিশ্বাস করে যে কেবল তাদেরই গালি দেওয়ার অধিকার রয়েছে এবং তারা এতটাই হতাশ হয়ে পড়েছে যে এখন গালাগালি করা তাদের স্বভাব হয়ে দাঁড়িয়েছে।” ২০১৪ সালে প্রধানমন্ত্রী হওয়ার আগে প্রধানমন্ত্রী মোদী গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন। সেই সময়ের কথাও এদিন তুলে ধরেছেন প্রধানমন্ত্রী। সেই সঙ্গেই  প্রধানমন্ত্রী   বিরোধী নেতাদের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন জারা অভিযোগ করেছে যে মোদী সরকার তদন্ত সংস্থাগুলি তাদের দমন করার জন্য অপব্যবহার  করছে। এই বিষয়ে নমো বলেছেন,   তাঁর সরকার   দুর্নীতির প্রতি শূন্য-সহনশীলতা থাকবে।
দুর্নীতি ও কেন্দ্রীয় তদন্তকারীদের অভিযান নিয়ে মোদী বলেছেন, “যে ব্যক্তি এই আবর্জনা ফেলছে তাকে জিজ্ঞাসা করুন, আপনি যা বলছেন তার প্রমাণ কী?…আমি এই আবর্জনাকে সারতে রূপান্তরিত করব এবং এটি থেকে দেশের জন্য কিছু ভাল জিনিস তৈরি করব  যখন মনমোহন সিং ক্ষমতায় ছিলেন ১০  বছরের ৩৪  লক্ষ বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে এবং বর্তমানে গত  ১০ বছরে ED ২,২০০ কোটি টাকা বাজেয়াপ্ত করেছে , যে ২০২০০ কোটি টাকা দেশে ফিরিয়ে এনেছে তাকে সম্মান করা উচিত এবং অপব্যবহার করা উচিত নয়। ” এর পরেই তিনি নিশানা করে বলেন, ” যার টাকা চলে  গিয়েছে সে গালাগালি করছে…তার মানে যার টাকা চুরির অংশ আছে সে ধরা পড়লে একটু চিৎকার করবে…আজকে একজন সরপঞ্চের চেকবুকে সই করার অধিকার আছে কিন্তু দেশের প্রধানমন্ত্রী এটা নেই…মোদী সরকার তার অফিসারদের বলেছে যে আমার সরকারের দুর্নীতির প্রতি শূন্য সহনশীলতা রয়েছে।”  জেলে কারা কারা যাবেন, তা প্রধানমন্ত্রী মোদী সিদ্ধান্ত নেন, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “”এই লোকেরা যদি সংবিধান পড়ে, দেশের আইন পড়ে তবে ভাল হবে, আমার কাউকে কিছু বলার দরকার নেই।”

You may also like

Mahanagar bengali news

Copyright (C) Mahanagar24X7 2024 All Rights Reserved