Home National ৩ ঘণ্টা অস্ত্রপচারের পর এক ব্যক্তির পেট থেকে উদ্ধার হল স্ক্রু, লকেট-সহ একাধিক ধাতব বস্তু

৩ ঘণ্টা অস্ত্রপচারের পর এক ব্যক্তির পেট থেকে উদ্ধার হল স্ক্রু, লকেট-সহ একাধিক ধাতব বস্তু

by Mahanagar Desk
2 views

মহানগর ডেস্ক: এই ঘটনা একবার দুবার নয়, এর আগেও একাধিকবার ঘটেছিল। দীর্ঘদিন ধরে পেটে মারাত্মক যন্ত্রণা, কোনও স্বাস্থ্যবিধি পরীক্ষাতেও মিলছিল না রোগের হদিশ। অবশেষে পেট কাটতেই উদ্ধার হয়, সোনার গয়না, মোবাইল। কী অবাক হচ্ছেন তো, বিষয়টি শুনতে অবাক লাগলেও একেবারে রটনা নয় ঘটনা। সম্প্রতি তিন ঘণ্টার অস্ত্রোপচারের পর চিকিৎসকরা এই ব্যক্তির পেট থেকে উদ্ধার করল একাধিক ইলেকট্রনিক্স জিনিসপত্র। ঘটনাটি ঘটেছে, বৃহস্পতিবার পাঞ্জাবের মোগার একটি হাসপাতালে। যা দেখে ডাক্তাররাও রীতিমতো হতবাক হয়ে গিয়েছিলেন। চিকিৎসকদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, একজন রোগীর অপারেশনের সময়, তাঁরা তাঁর পেটের ভিতর থেকে ইয়ারফোন, লকেট, স্ক্রু এবং একটি রাখি উদ্ধার করে।

ব্যক্তিটির বয়স ৪০ বছর। সূত্র অনুযায়ী, ব্যক্তিটি দুই দিনের বেশি সময় ধরে প্রচণ্ড উচ্চ জ্বরে আক্রান্ত এবং পেটে ব্যথায় ভুগছিলেন। সঙ্গে মারাত্মক বমি। অবস্থার বাড়াবাড়ি হওয়ায় তাঁকে তৎক্ষণাৎ মোগার মেডিসিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু ডাক্তাররা অনেক চেষ্টা করেও পেটের ব্যথা কমতে না পারায় এক্স-রে স্ক্যান করার সিদ্ধান্ত নেন। এরপরেই স্ক্যানে উঠে আসে, লোকটির পেটের ভিতরে বেশ কিছু ধাতব বস্তু রয়েছে। এরপর তিন ঘণ্টার দীর্ঘ অস্ত্রোপচারের পর চিকিৎসকরা সফলভাবে তাঁর শরীর থেকে সেই সমস্ত ধাতব জিনিসপত্র বের করতে সক্ষম হন।

তাঁর পেট থেকে বের করা হয়, প্রায় শতাধিক জিনিসপত্র। যার মধ্যে ছিল, ইয়ারফোন, ওয়াশার, নাট অ্যান্ড বোল্ট, তার, রাখি, লকেট , বোতাম, মোড়ক, হেয়ারক্লিপ, একটি জিপার ট্যাগ, একটি মার্বেল এবং একটি সেফটি পিন। এই প্রসঙ্গে, হাসপাতালের ডিরেক্টর ডাঃ আজমির কালরা বলেন, এই ধরনের ঘটনা এই প্রথম তাঁর হাসপাতালে এবং লোকটি দুই বছর ধরে পেটের সমস্যায় ভুগছিল। তবে তাঁর শরীর থেকে সমস্ত জিনিসপত্র সরানো হলেও তাঁর অবস্থা এখনও স্থিতিশীল নয়। আইটেমগুলি দীর্ঘদিন ধরে তাঁর পেটে ছিল, যা তাঁর শরীরে আরও রোগীর সৃষ্টি করেছে। লোকটির পরিবার বলেছে, তাঁরাও অবাক। তিনি কখন এবং কেন জিনিসগুলি সেবন করেছিলেন তা তাঁরা জানে না। তবে লোকটি মানসিক অসুস্থতায় ভুগছিল। হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার কয়েকদিন আগে থেকেই তিনি ঘুমাতে পারছিলেন না।

You may also like

Mahanagar bengali news

Copyright (C) Mahanagar24X7 2024 All Rights Reserved