Home National সংসদে শুরু বিশেষ অধিবেশন, কী কী হতে পারে ৫ দিনে

সংসদে শুরু বিশেষ অধিবেশন, কী কী হতে পারে ৫ দিনে

by Mahanagar Desk
7 views

নয়াদিল্লি: প্রস্তাবিত সময় অনুসারে সোমবার সংসদে শুরু হয়েছে বিশেষ অধিবেশন। আগামিকাল নতুন সংসদ ভবনে হবে বিশেষ অধিবেশন। নিয়ম মেনে আজই পুরনো সংসদ ভবনে অধিবেশন সভার শেষদিন ছিল। গণেশ চতুর্থীর শুভ তিথি মেনে মঙ্গলবার প্রবেশ করা হবে নবনির্মিত নতুন সংসদ ভবনে। ৮টি গুরুত্বপূর্ণ বিল পেশের সম্ভবনা রয়েছে এই অধিবেশনে। তারমধ্যে রয়েছে এক দেশ এক নির্বাচন বিল, দেশের নাম ইন্ডিয়ার পরিবর্তে ভারত করার প্রস্তাব উত্থাপন করা হবে অধিবেশনে। সংসদ ভবনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে অধিবেশনের সূচনা করেছেন রাজ্যসভার চেয়ারম্যান জগদীপ ধনখড়। অধিবেশন ডাকা নিয়ে জল্পনা তৈরি হয়েছে বিরোধীদের মধ্যে। কংগ্রেস সাংসদ তথা সংসদের বিরোধী দলনেতা অধীররঞ্জন চৌধুরী অধিবেশনের শুরুতেই বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার অধিবেশন ডাকলে সংবাদমাধ্যম থেকে সেই খবর জানতে হয়।

আরও পড়ুন: মানিকের বিরুদ্ধে সিবিআই তদন্ত বন্ধ কেন? প্রশ্ন তুললেন অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়

৮টি বিলের মধ্যে রয়েছে অ্যাডভোকেটস বিল ২০২৩, প্রেস অ্যান্ড রেজিস্টেশন অফ পিরিওডিক্যাল বিল ২০২৩, নির্বাচন কমিশনার ও অন্যান্য নির্বাচনী আধিকারিকদের নিয়োগ সংক্রান্ত বিল। অধিবেশনের প্রথমদিন বিতর্কের শুরুতে কংগ্রেস সাংসদ অধীররঞ্জন চৌধুরী বলেন, মনমোহন সিং-কে মৌন বলে কটাক্ষ করা হয়, আসলে তিনি কাজ বেশি করতেন কথা কম বলতেন। জীবনে যেমন অনেক বন্ধু আসে আবার চলেও যায় তেমনভাবেই এই সংসদ ভবনে কাজ চলছে। সংসদের এই বিশেষ অধিবেশনকে কটাক্ষ করেছেন তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও ব্রায়েন।তিনি বলেন, সংসদে বিশেষ অধিবেশন ডাকার কারণ বিরোধীদের কাছে স্পষ্ট ছিল না। আসল কারণ পরে জানা গেল। নরেন্দ্র মোদীর জন্মদিন পালনের জন্যই এই বিশেষ অধিবেশন ডেকেছে কেন্দ্রীয় সরকার। ১৮ থেকে ২২ সেপ্টেম্বর সপ্তাহব্যাপী তার জন্মদিন পালন করা হবে। শনিবার হায়দরাবাদে কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে সংসদে বিশেষ অধিবেশন প্রসঙ্গ ওঠে। এই প্রসঙ্গে মোদীকে চিঠিও দিয়েছেন কংগ্রেসের সংসদীয় দলের চেয়ারপার্সন সোনিয়া গান্ধী। মোদী সরকারের মনোভাব নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি। সংসদে বিশেষ অধিবেশনের প্রথমদিনের ভাষণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, সংসদের ৭৫ বছর উদযাপন হবে এই অধিবেশনে।

আরও পড়ুন: প্রয়াত রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী তথা বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা

সংবিধানসভা পালন করবে দেশ। সংবিধানের বিভিন্ন শিক্ষা, স্মৃতি বিজড়িত দিক নিয়ে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রী। বিরোধীদের দাবি, এই অধিবেশনে সংসদে মহিলা সংরক্ষণ বিল নিয়ে আলোচনা করতে হবে। এই বিলের আওতায় বিধানসভা ও লোকসভায় মহিলাদের জন্য এক-তৃতীয়াংশ আসন সংরক্ষণের প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা করা হোক। সংসদে ভাষণে নরেন্দ্র মোদীর মুখে ৩ প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা উঠে আসে। জওহরলাল নেহরু, লালবাহাদুর শাস্ত্রী, ইন্দিরা গান্ধীর কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ৩ প্রধানমন্ত্রীকে তাদের কার্যকালের মধ্যেই হারিয়েছে সংসদ। এই সংসদ ভবন যেমন জরুরি অবস্থা দেখেছে তেমন জরুরি অবস্থা থেকে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা হতেও দেখেছে। ইন্দিরা গান্ধির প্রশংসা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের মুক্তির জন্য এই সংসদভবন ইন্দিরা গান্ধির পাশেও দাঁড়িয়ে ছিল। পাশাপাশি তিনি বল্লভভাই প্যাটেল ও লালকৃষ্ণ আদবানির সংসদে নেতৃত্ব দেওয়ার কথাও উল্লেখ করেন। প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণে বলেন, সংসদ গণতন্ত্রের মন্দির। ভারতের প্রতি সন্দেহ করা কিছু মানুষের অভ্য়াস হয়ে দাঁড়িয়েছে। জি-২০ সাফল্য কোন ব্য়ক্তি বা দেশের নয়। গোটা দেশ এই সাফল্য়ের দাবিদার। সংসদে সোমবার বিশেষ অধিবেশনে মাইক বন্ধ করে দেওয়ার অভিযোগে সরব হয় বিরোধীরা। স্পিকার অবশ্য় জানান, যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে এমনটা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বিরোধীদের উদ্দেশে বলেন, পুরনো কথা ভুলে গিয়ে নতুন কথা ভেবে এগিয়ে আসুন। কান্নাকাটির জন্য় অনেক সময় পাবেন। গনেশ চতুর্থীর দিন থেকে নতুন সংসদ ভবনে শুরু হবে অধিবেশন, জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

You may also like

Mahanagar bengali news

Copyright (C) Mahanagar24X7 2024 All Rights Reserved