Home National Twenty Eight Dead In A day: অমিল ওষুধ, মহারাষ্ট্রে সরকারি হাসপাতালে একদিনে ১২ নবজাত শিশু-সহ ২৮জনের মৃত্যু

Twenty Eight Dead In A day: অমিল ওষুধ, মহারাষ্ট্রে সরকারি হাসপাতালে একদিনে ১২ নবজাত শিশু-সহ ২৮জনের মৃত্যু

by Mahanagar Desk
2 views

মহানগর ডেস্ক: অমিল ওষুধ, হাসপাতালে কর্মীর অভাব। তার জেরে মহারাষ্ট্রের নান্দেদে একদিনে ১২টি নবজাত শিশু-সহ ২৮ জনের মৃত্যুর ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে (Eighteen Dead In A day)। হাসপাতালের ডিন জানিয়েছেন প্রাপ্তবয়স্করা বিভিন্ন অসুখে, বেশির ভাগ সাপের কামড়ে মারা গিয়েছেন। নান্দেদের ডিন জানিয়েছেন চব্বিশ ঘণ্টায় ছটি পুরুষ ও ছটি মেয়ে শিশুর মৃত্যু হয়েছে। ১২জনের মৃত্যু হয়েছে, যাদের অধিকাংশের মৃত্যু সাপের কামড়ে।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সাফাই কর্মীরা বদলি হওয়ায় সমস্যা দেখা দেওয়ায় এই ঘটনা ঘটেছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে এটি তৃতীয় শ্রেণির পর্যায় ভুক্ত কেয়ার সেন্টার। সত্তর থেকে আশি কিলোমিটার রেডিয়াসে এই ধরণের একমাত্র জায়গা। ফলে বহু দূর থেকে রোগীরা এখানে আসেন। দিন কয়েকধরে এই হাসপাতালে রোগীদের সংখ্যা বেড়ে গিয়েছিল। এ কারণে বাজেটে সমস্যা দেখা দিয়েছে। এটি মূলত ভ্যাকসিন দেওয়ার কেন্দ্র। তাদের কাছ থেকে সাধারণত ওষুধ এই হাসপাতাল কিনে থেকে। তবে এবার সেটাই হয়নি। স্থানীয় এলাকা থেকে ওষুধ কিনে রোগীদের দেওয়া হয়েছিল।

একদিনে ২৪জনের মৃত্যুর ঘটনাকে দুর্ভাগ্যজনক আখ্যা দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী একনাথ শিন্ডে সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছে হাসপাতালে যা ঘটেছে, সে ব্যাপারে আরও তথ্য চাওয়া হয়েছে। একদিনে ২৪জনের মৃত্যুর ঘটনায় সরব হয়েছে বিরোধী দলগুলি। শিন্ডে সরকারকে একহাত নিয়ে বর্তমান সরকারকে তিন ইঞ্জিনের সরকার বলে বর্ণনা করেছে তারা। তাদের দাবি ঘটনার দায় নিক সরকার। এদিন হাসপাতাল ঘুরে এসে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অশোক চবন জানান, মোট চব্বিশটি প্রাণ গিয়েছে। ওই সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা পরিষেবা ও কর্মীদের অভাব রয়েছে। বহু নার্সকে বদলি করা হয়েছে এবং তাঁদের বদলির পর নতুন করে কারোকে নেওয়া হয়নি।

হাসপাতালে পাঁচশো জনের চিকিৎসার ব্যবস্থা রয়েছে আর বারোশজনকে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি এ নিয়ে অজিত পাওয়ারের সঙ্গে কথা বলবেন বলে জানিয়েছেন চবন। এই সরকারকে ট্রিপল ইঞ্জিন সরকার বলে বর্ণনা করে এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ারের মেয়ে সুপ্রিয়া সুলে বলেছেন এতগুলি নিরীহ মানুষের মৃত্যুর দায় তাদের নিতে হবে। এ ঘটনার জন্য একমাত্র তারাই দায়ী।

এক্স হ্যান্ডেলে শরদ পাওয়ারের এনসিপির মুখপাত্র বিকাশ লাওন্ডে লিখেছেন, সরকারি হাসপাতালে চব্বিশজনের মৃত্যু, যাদের মধ্যে ১২টি সদ্যোজাত শিশু রয়েছে। ওষুধের অভাবের জন্যই এমন ঘটনা ঘটেছে। সরকারের লজ্জা হওয়া উচিত, বিজ্ঞাপন আর অনুষ্ঠানের সরকারে পরিণত হয়েছে তারা। প্রসঙ্গত, দু মাস আগে চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যে ১৮জনের মৃত্যুর ঘটনা ঘটে থানের কালোয়ায় ছত্রপতি শিবাজি মহারাজ হাসপাতালে। মৃতদের মধ্যে বারোজনের বয়েস পঞ্চাশের ওপর।

 

You may also like

Mahanagar bengali news

Copyright (C) Mahanagar24X7 2024 All Rights Reserved