Home Uncategorized Inhuman Behave : অ্যাম্বুলেন্স নেই বলে ফেরাল হাসপাতাল, মৃত সদ্যোজাতকে বাইকের সাইড বক্সে নিয়ে বাড়ি ফিরলেন দম্পতি!

Inhuman Behave : অ্যাম্বুলেন্স নেই বলে ফেরাল হাসপাতাল, মৃত সদ্যোজাতকে বাইকের সাইড বক্সে নিয়ে বাড়ি ফিরলেন দম্পতি!

by Mani Sankar Debnath

মহানগর ডেস্ক: হে মোর দুর্ভাগা দেশ! মধ্যপ্রদেশের সিংগ্রালি ঘটনায় এমন ঘটনায় রীতিমতো মাথা নত যাওয়ারই কথা। মনে হতেই পারে এমন অমানবিক আচরণও কারো কপালে জুটতে পারে। কিন্তু সেই অমানবিক, নির্মম ঘটনারই সাক্ষী হতে হয়েছে সিংগ্রালির এক দম্পতির জীবনে। এই ঘটনার জেরে বিজেপি শাসিত মধ্যপ্রদেশের চিকিৎসাব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। সন্তানসম্ভবা স্ত্রীকে নিয়ে হাসপাতালে এসেছিলেন স্বামী। সন্তান প্রসবের সময় হওয়ার সময় চিকিৎসকের পরামর্শে স্ত্রীকে প্রথমে একটি বেসরকারি ক্লিনিকে নিয়ে গিয়েছিলেন। সন্তান প্রসব করানোর জন্য ওই ক্লিনিক চেয়েছিল পাঁচ হাজার টাকা। কিন্তু তাদের কাছে সাকুল্যে মোট তিন হাজার টাকা ছিল। সে কথা জানাতে স্রেফ না করে দেয় ক্লিনিকটি।

তারা সাফ জানায় পাঁচ হাজার টাকা না হলে প্রসব করানো যাবে না। ক্লিনিক জানায় পুরো টাকা নিয়ে এসে পরের দিন এসে তাঁদের নতুন করে স্লিপ নিতে হবে। তারপর শুরু করা হবে প্রয়োজনীয় প্রক্রিয়া। পরের দিন আসার পর ক্লিনিক জানায় তাঁর স্ত্রীর আলট্রাসাউন্ড করতে হবে। আলট্রা সাউন্ড করার পর সন্তান প্রসব করাতে গিয়ে তাঁরা জানতে পারেন গর্ভের সন্তানটি মারা গিয়েছে। এরপর তাদের কাছাকাছি একটি হাসপাতালে পাঠায় ক্লিনিকটি মৃত সন্তান প্রসব করানোর জন্য। মৃত সন্তান প্রসব করার পর একটি অ্যাম্বুলেন্সের জন্য তাঁরা হাসপাতালকে বারবার অনুরোধ করেন তাঁরা। কিন্তু হাসপাতাল কোনও সাড়াই দেয় না বলে জানিয়েছেন দীনেশ ভারতী নামে ওই মৃত সন্তানের বাবা। তারপর সাহায্য চাইতে মৃত সন্তানকে তাঁর বাইকের সাইড বক্সে নিয়ে রওনা দেন জেলা কালেক্টোরেটের অফিসে। সঙ্গে যান তাঁর স্ত্রী ও বড় ছেলে। পরে জেলা কালেক্টর জানান, ঘটনাটির কথা তিনি জেনেছেন। এই ঘটনায় হাসপাতালের অবহেলা নিয়ে দম্পতির অভিযোগের তদন্ত শুরু করা হচ্ছে। কোনও গাফিলতি পাওয়া গেলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

You may also like