Chandrakant Patil: ‘রাজনীতির বদলে মহিলাদের বাড়িতে রান্না করা উচিত’, বিতর্কিত মন্তব্য বিজেপি নেতার

69
Chandrakant Patil: 'রাজনীতির বদলে মহিলাদের বাড়িতে রান্না করা উচিত', বিতর্কিত মন্তব্য বিজেপি নেতার

মহানগর ডেস্ক: মহারাষ্ট্রের বিজেপি নেতা চন্দ্রকান্ত পাটিলের ( Chandrakant Patil) কথায়, রাজনীতির মঞ্চ ছেড়ে বাড়িতে বসে রান্না করা উচিত মহিলাদের। নেতার মন্তব্যে তোলপাড় রাজনৈতিক মহল। এনসিপি (NCP) নেত্রী সুপ্রিয়া সুলের( Supriya Sule) উদ্দেশে মূলত এই কথা বলেছেন মহারাষ্ট্রের বিজেপি প্রধান (BJP Leader)। স্থানীয় নির্বাচনে ওবিসি কোটা সংরক্ষণ প্রসঙ্গে ভারতীয় জনতা পার্টিকে খোঁচা মেরে কথা বলেছিলেন এনসিপি নেত্রী। তাঁর উত্তর দিতে গিয়েই বিতর্কিত মন্তব্য করে ফেললেন চন্দ্রকান্ত।

প্রসঙ্গত, মধ্যপ্রদেশের স্থানীয় নির্বাচনে অন্যান্য অনগ্রসর জাতির জন্য আসন সংরক্ষণের অনুমতি দিয়েছে শীর্ষ আদালত। প্রসঙ্গে এনসিপি নেত্রী বলেছেন, ‘মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান দিল্লিতে এসে বিশেষ কারোর সঙ্গে দেখা করেছিলেন। তার দুদিনের মধ্যেই মধ্যপ্রদেশে ওবিসি সংরক্ষণের অনুমতি দেওয়া হল। এত তাড়াতাড়ি কি করে এই অনুমতি পাওয়া গেল? সেই নিয়ে প্রশ্ন জাগছে।

আরও পড়ুন: ‘যৌনপরিষেবা দেওয়া একটি আইন স্বীকৃত পেশা’, ঐতিহাসিক রায় সুপ্রিম কোর্টের

উত্তরে চন্দ্রকান্ত পাটিল বলেছেন, ‘আপনি রাজনীতির ময়দানে আছেন কেন? বাড়িতে গিয়ে রান্না করুন। দিল্লি গিয়ে হোক বা কবরস্থানে গিয়ে হোক আমাদের ওবিসি সংরক্ষণ করে দিন’। যারপর তাঁর মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করেছে এনসিপি শিবির। তবে পরবর্তীতে সাফাই গেয়েছেন নেতা। তাঁর বক্তব্য, ‘আমি মহিলাদের সম্মান করি। সুপ্রিয়া দিদির সঙ্গে আমার অনেক কথা হয়। আমি আসলে বলতে চেয়েছিলাম, গ্রামে গিয়ে তিনি যেন মানুষের পাশে দাঁড়ান’। অপরদিক থেকে এনসিপির বিদ্যা চৌহান বলেছেন, ‘চন্দ্রকান্তের উচিত রুটি বানানো শেখা। যাতে বাড়িতে স্ত্রীকে সাহায্য করতে পারেন। আমরা জানি বিজেপি মনসংহিতা মেনে চলে। আমরা আর চুপ করে থাকব না’।