Mahua Moitra: ‘অরুণাচলের জন্য এটা লজ্জার বিষয়’, IAS দম্পতির বদলির বিরুদ্ধে সরব মহুয়া

457
Mahua Moitra: 'অরুণাচলের জন্য এটা লজ্জার বিষয়', IAS দম্পতির বদলির বিরুদ্ধে সরব মহুয়া

মহানগর ডেস্ক: দিল্লির স্টেডিয়ামে পোষ্যকে নিয়ে ঘোরার অভিযোগ ওঠে আইএএস (IAS) দম্পতি সঞ্জীব খিরাওয়ার এবং রিঙ্কু দুগ্গার বিরুদ্ধে। যার পর ঘটনাকে ঘিরে শোরগোল পড়ে যায় রাজধানীতে এবং দম্পতির একজনকে লাদাখ (Ladakh) ও অন্যজনকে অরুণাচলে (Arunachal Pradesh) বদলি করা হয়। তবে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের এই সিদ্ধান্ততে সরব হয়েছেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র( Mahua Moitra)। তাঁর বক্তব্য, ‘এই ধরনের অফিসারকে কেন অরুণাচলে বদলি করা হল? এটা অরুণাচল প্রদেশের জন্য লজ্জার বিষয়। বদলি কখনও সাজা হতে পারে না’।

টুইট করে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলেছেন তৃণমূল সাংসদ। তাঁর কথায়, ‘উত্তর-পূর্বের জন্য কেন্দ্রীয় সরকার মুখেই মারিতং জগৎ। কিন্তু কাজের বেলায় কিছুই করে না’। প্রসঙ্গে তিনি প্রশ্ন করেছেন, ‘শাস্তি দেওয়ার জন্য কি বদলি করাটাই একমাত্র উপায়?’ তাঁর বক্তব্য, “সমস্ত ‘বিশ্বগুরুর’ এই বিষয়ে ভাবা উচিত “। দিল্লি সরকারের অধীনে কর্মরত থাকা দুই অফিসারের একজনকে লাদাখ অন্যজনকে অরুণাচল প্রদেশে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। জানা গিয়েছে, এই দুই অফিসার কুকুরকে নিয়ে হাঁটবেন বলে, রাতে দিল্লির স্টেডিয়াম অ্যাথলিটদের জন্য বন্ধ রাখা হতো। খেলোয়াড়দের তাড়াতাড়ি প্র্যাকটিস করতে বলা হত এবং তাঁদের তড়িঘড়ি বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হতো।

আরও পড়ুন: স্টেডিয়ামে পোষ্যকে নিয়ে ভ্রমণের জের, লাদাখে বদলি IAS অফিসার

এই খবর সামনে আসতেই নয়া নির্দেশিকা জারি করেছে দিল্লি আম আদমি পার্টির সরকার। নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, রাত ১০টা পর্যন্ত স্টেডিয়ামের দরজা খোলা থাকবে। যাতে খেলোয়াড়রা সব রকমের প্র্যাকটিস করতে পারেন ।সেইসঙ্গে নির্দেশিকায় অফিসারদের বদলির কথাও বলা হয়েছে। তবে তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মিত্র প্রশ্ন তুলেছেন, কেন অরুণাচল প্রদেশে বদলি করা হয়েছে এই ব্যক্তিত্বদের? অরুণাচল প্রদেশকে কি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক এমন জায়গা হিসেবে দেখে, যেখানে এইসব লোকেদের বদলি করা যায়। এমনকি এই নিয়ে প্রতিবাদ করার জন্য সেখানকার মুখ্যমন্ত্রীকে আবেদন করেছেন তিনি।

অন্যদিকে জম্মু কাশ্মীরের মুখ্যমন্ত্রী ওমর আব্দুল্লাও এই বিষয়ে মুখ খোলেন। তাঁর বক্তব্য, “লাদাখে বদলি করাটা কি পানিশমেন্ট পোস্টিংয়ের মধ্যে পরে? কারোর কাছে লাদাখ খুবই সুন্দর জায়গা। কিন্তু সেই জায়গাকে এরকম শাস্তি সূচক বদলি হিসেবে দেখানো টা কি জরুরী!’ এদিন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের সিদ্ধান্তে সরব হয়েছেন তৃণমূল সাংসদ।