‘পশ্চিমবঙ্গ বাংলাদেশে পরিণত হতে বেশি দেরি নেই’, আচমকা বিস্ফোরক মন্তব্য শুভেন্দুর

13

মহানগর ডেস্ক: বিজেপিতে যোগদানের পর থেকেই একাধিকবার পশ্চিমবাংলা, বাংলাদেশ হয়ে যাবে বলে কটাক্ষ করেছেন শুভেন্দু অধিকারীর। একুশের বিধানসভা নির্বাচন, একুশের পুরভোট কিংবা একাধিক রাজনৈতিক সভায় তাঁর মুখ থেকে এই কথাটা প্রায়ই শোনা যায়। এমনকি সম্প্রতি বাংলাদেশে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর ঘটে যাওয়া পাশবিক অত্যাচারের ঘটনা নিয়েও শুভেন্দু অধিকারী কটাক্ষ করে বলেছিলেন বাংলাদেশের ঘটনায় কেন মুখ খুলছেন না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার রাজ্যের বিরোধী দলনেতা দাবি করলেন, পশ্চিমবঙ্গ-বাংলাদেশে পরিণত হতে আর বেশি দেরি নেই। বুধবার মহিষাদলের জগতপুরে হিন্দু জাগরণ মঞ্চের উদ্যোগে বিশ্ব শান্তি যজ্ঞ অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েছিলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।

আর সেখান থেকেই তিনি জানান, পশ্চিমবঙ্গ-বাংলাদেশে পরিণত হতে বেশি দেরি নেই। পাশাপাশি তিনি মুখ্যমন্ত্রীর গঙ্গাসাগর সফর নিয়েও কটাক্ষ করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, কপিল মুনি আশ্রমের প্রধান মহন্ত আড়ালে নিয়ে গিয়ে কিছু প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। তাই তিনি আগামী দিনে প্রধানমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হবে বলেছেন। আগামী দিনে সনাতনীদের জাগ্রত না হলে কোনও উপায় নেই। ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। এগিয়ে আসতে হবে সকলকে। মঙ্গলবার কপিল মুনি আশ্রমের প্রধান মহান্ত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে পাশে নিয়ে বলেছিলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রধানমন্ত্রী হওয়া থেকে কেউ আটকাতে পারবে না। আমরা তাঁকেই প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চাই।

এমনকি এই দিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রের বিরুদ্ধে কটাক্ষ করে বলেছিলেন, এই মেলা কুম্ভ মেলার থেকে কোনও অংশে কম নয়। কুম্ভ মেলার মত এই মেলা পবিত্র। কথায় বলে সব তীর্থ বার বার, গঙ্গাসাগর একবার। আমরা বহুবার কেন্দ্রীয় সরকারকে চিঠি লিখে আবেদন জানিয়েছে এই মেলাকে জাতীয় স্বীকৃতি দেওয়া হোক। কিন্তু কোনও সাড়া পাইনি।