Home Featured Jagannath Snan Yatra: ১০৮ ঘড়া জলে স্নান হয় পুরীর জগন্নাথের, জেনে নিন এই বিশেষ উৎসবের পেছনের কাহিনী

Jagannath Snan Yatra: ১০৮ ঘড়া জলে স্নান হয় পুরীর জগন্নাথের, জেনে নিন এই বিশেষ উৎসবের পেছনের কাহিনী

by Anamika Nandi

মহানগর ডেস্ক: বাঙালির বারো মাসে তেরো পার্বণ। যার মধ্যে একটি হল রথযাত্রা। আর হাতে গোনা কয়েকটা দিন বাকি রথের উৎসবের। তার আগে আজ জগন্নাথদেবের স্নানযাত্রার (Jagannath Snan Yatra) বিশেষ উৎসব ধুমধাম করে পুরী (Puri), মাহেশ ও ইস্কনের মন্দিরে পালিত হয়েছে। সেইসঙ্গে যেসব মন্দিরে ও বনেদি বাড়িতে রথ উৎসব পালন হয়ে থাকে, সেখানেও ঘটা করে আজকে স্নান করানো হয়েছে জগন্নাথদেবকে।

মনে করা হয়, আজকের দিনই জগন্নাথের জন্মদিন। তাই দেশজুড়ে মহাসমারোহে পালিত হয়ে থাকে এই উৎসব। যাকে ঘিরে পুরাণেও নানা কাহিনী রয়েছে। কথিত আছে, জগন্নাথদেবের স্নানযাত্রার দিন তাঁকে স্নান করানোর পর, তাঁর জ্বর আসে। তিথি অনুযায়ী, ১৪ জুন অর্থাৎ আজ মঙ্গলবার অপরাহ্ন ঘ ৫।৩৭ মিনিটের মধ্যে জগন্নাথের স্নান যাত্রা সম্পন্ন করতে পারলে, তা শুভ। এই বিশেষ তিথিতে একাধিক পরম্পরা মেনে স্নানযাত্রা সম্পন্ন হয় ঐতিহ্যবাহী পুরীর মন্দিরে।

আরও পড়ুন:  অভিষেকের বাড়িতে CBI’র আসা পূর্বপরিকল্পিত: কুণাল ঘোষ

স্কন্দ পুরাণ অনুযায়ী, রাজা ইন্দ্রদ্যুন্ম কাঠ দিয়ে নির্মাণ করেছিলেন জগন্নাথদেব, দেবী সুভদ্রা ও বলভদ্র দেবের মূর্তি। সেই মূর্তি গড়ার নেপথ্যে রয়েছে আজকের স্নানযাত্রার কাহিনী। নিয়ম মেনে তখন থেকেই একটি বেদীতে জগন্নাথ, সুভদ্রা ও বলভদ্রকে স্নান করানো হতো পুরীতে। এদিন ১০৮ টি ঘড়ার জল দিয়ে জগন্নাথ দেব, সুভদ্রা ও বলভদ্র দেবকে স্নান করানো হয়। যে জলে থাকে সুগন্ধী নানা সামগ্রী।

করোনা আবহে গত দু’বছরে নানা বিধি নিষেধ ছিল পুরীর পুণ্যার্থীদের জন্য। তবে এবার সেই বিধিনিষেধ না থাকায়, পুরীর মন্দিরে পূণ্যার্থীদের উপচে পড়া ভিড় নজরে এসেছে। সকালে গর্ভগৃহ থেকে শোভাযাত্রা সহকারে স্নান মন্ডপে আনা হয়েছে জগন্নাথ, বলরাম ও সুভদ্রাকে। সেখানে স্নান করার পর ১৫ দিনের বিশ্রাম পর্ব। রথযাত্রার দিন ফের দেখা মিলবে জগন্নাথদেবের। এদিকে মাহেশে ৬২৬ বছরে পা দিল জগন্নাথের স্নানযাত্রা। এত বছর ধরে সেখানে একটি বিগ্রহকেই পূজা করা হচ্ছে। করোনা মহামারীর জেরে গত দু’বছর দর্শন পাওয়া যায় নি সেখানকার জগন্নাথ দেবেরও। একইভাবে এদিন সকাল থেকেই সেখানে পূণ্যার্থীদের ভিড় জমে ছিল।

You may also like