কোপ পড়ল অনুগামীদের গলায়! তৃণমূলের টিকিট পেলেন না জিতেন্দ্রর কেউ-ই!

28

নিজস্ব প্রতিনিধি : কোপ পড়ল জিতেন্দ্র ঘনিষ্ঠদের ওপর! আসানসোল পুরসভা নির্বাচনে এবার টিকিট পাচ্ছেন না প্রাক্তন মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারির অনুগামীরা। জিতেন্দ্র বিজেপিতে যোগ দিলেও, তাঁর অনুগামীরা রয়ে গিয়েছেন তৃণমূলে। এঁদেরই এবার প্রার্থী করার দুঃসাহস দেখায়নি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল।

এক সময় তিনিই ছিলেন আসানসোলের শেষ কথা। ভালো কাজের জন্য পুরসভার বাসিন্দাদের কাছে মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারি হয়ে উঠেছিলেন চোখের মণি। তখন তিনি ছিলেন তৃণমূলে। একুশের বিধানসভা ভোটের আগে দলবদল করে তিনি যোগ দেন পদ্মফুলে। তার পরেও জনতার চোখে এতটুকুও গুরুত্ব কমেনি জিতেন্দ্রর।

তাই এবার পুরসভা নির্বাচনে জিতেন্দ্র-ঘনিষ্ঠ নেতাদের টিকিট দেয়নি তৃণমূল। যেমন, পূর্ণশশী রায়। জিতেন্দ্র যখন মেয়র ছিলেন, তখন পূর্ণশশী মেয়র পারিষদ। জল বিভাগের মেয়র পারিষদ হিসেবে তিনি প্রশংসা কুড়িয়েছিলেন আসানসোলবাসীর। তাঁকে প্রার্থী করেনি তৃণমূল। বাদ পড়েছেন জিতেন্দ্রের কাছের লোক হিসেবে এলাকায় পরিচিত প্রাক্তন মেয়র পরিষদ মীর কাশিমও। জিতেন্দ্র-ঘনিষ্ঠ হওয়ার সুবাদে বাদ পড়েছেন আরও অনেকে। এঁদের মধ্যে রয়েছেন রবিউল ইসলাম, প্রাক্তন বোরো চেয়ারম্যান গোলাম সরবর, প্রমূখ।

তৃণমূলের উল্টো ছবি দেখা গেল গেরুয়া শিবিরে। এখানে জিতেন্দ্রকে টিকিট দেওয়া না হলেও, তাঁর স্ত্রী চৈতালিকে দেওয়া হয়েছে। জিতেন্দ্রর ছায়াসঙ্গী গৌরব গুপ্ত এবং আনন্দ শর্মাকেও টিকিট দিয়েছেন বিজেপি নেতৃত্ব। প্রার্থী করা হয়েছে জিতেন্দ্রর আর এক সঙ্গী অনুপ চট্টরাজকেও। চৈতালি, গৌরব ,আদর্শ এবং অনুপ এই চারজন এবারই প্রথম কলকাতা পুরসভারভোটে দাঁড়িয়েছেন। জিতেন্দ্র ঘনিষ্ঠ ছাড়াও অমিত তুলসিয়ান প্রমূখও রয়েছেন।