Primary TET: ১৭ বছর বয়সে প্রাথমিক শিক্ষকে চাকরি! মামলা দায়ের হাইকোর্টে

71
১৭ বছর বয়সে প্রাথমিক শিক্ষকে চাকরি! মামলা দায়ের হাইকোর্টে

মহানগর ডেস্ক: ক্রমাগত সামনে আসছে শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে দুর্নীতির খবর। এবার প্রাথমিকে অপ্রাপ্তবয়স্ককে নিয়োগের অভিযোগ উঠল। অপ্রাপ্তবয়স্ককে প্রাথমিকের চাকরি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। ১৮ বছর হয়নি এখনও, ১৭ বছর বয়সে চাকরি পেয়েছে প্রাথমিকে। আর এমনই ঘটনা ঘটেছে মালদায়। মালদা হাইকোর্টের চাঞ্চল্যকর অভিযোগ নিয়ে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সূত্রের খবর অনুযায়ী জানা গিয়েছে, ২০১৪ সালে যে টেট পরীক্ষা হয়, সেখানে যে নিয়োগ হয়েছিল, তাতে একজন পরীক্ষায় পাশ করেন এক ব্যক্তি। নিয়োগও হন তিনি। কিন্তু তার বয়স ১৭ বছর অর্থাৎ অপ্রাপ্তবয়স্ক তিনি। কিন্তু আইন অনুযায়ী ১৮ বছর না হলে কোনও কাজের ক্ষেত্রে কাউকে নিয়োগ করা যায় না। সেখানে ১৭ বছর বয়সে কিভাবে কাউকে সরকারি চাকরি অর্থাৎ প্রাথমিকের শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ করা যায়!

আরও পড়ুন: ‘বিদ্রোহীরা দলের প্রয়াত প্রতিষ্ঠাতার সত্যিকারের ‘ভক্ত’ ছিলেন না’, মন্তব্য সঞ্জয় রাউতের

অভিযোগকারী মামলা দায়ের করেছেন এই নিয়োগের বিরুদ্ধে। হাইকোর্টে ইতিমধ্যেই সেই মামলা পৌঁছেছে। সমস্ত কিছু ঠিক ঠাক থাকলে বৃহস্পতিবার অর্থাৎ আজই কলকাতা হাইকোর্টে অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের বেঞ্চে মামলাটির শুনানি হতে পারে। এর আগে প্রাথমিক নিয়োগ নিয়ে একাধিক অভিযোগ উঠেছিল। টাকার বিনিময় প্রাথমিকে চাকরি দেওয়ার মতো অভিযোগ উঠেছিল। সাদা খাতার বিনিময় চাকরি হয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছিল। একাধিক অভিযোগ রয়েছে প্রাথমিক টেট নিয়ে।

২০১৪ সালে প্রাথমিক টেট এর ২০১৭ সালের নিয়োগে একাধিক অভিযোগ উঠেছে। ইতিমধ্যেই অভিযোগের ভিত্তিতে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে কলকাতা হাইকোর্টের তরফে। সঙ্গে আরও জানানো হয়েছে, কলকাতা হাইকোর্টের নজরদারিতে সিবিআই সিট তৈরি করবে। আর সেই সিট তদন্ত করবে।