মেধাতালিকায় নাম না থেকেও চাকরি মন্ত্রীর মেয়ের? উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষক নিয়োগে CBI তদন্তের নির্দেশ

54

মহানগর ডেস্ক: রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে একের পর এক দুর্নীতির খবর এসেছে সামনে। গ্রুপ সি, গ্রুপ ডি থেকে শুরু করে নবম-দশম, একাদশ-দ্বাদশ প্রত্যেকটি ক্ষেত্রেই হয়েছে দুর্নীতি। একাধিক ক্ষেত্রে দেওয়া হয়েছে সিবিআই তদন্ত। এবার একাদশ-দ্বাদশ শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রেও সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট। এমনকি দুর্নীতিতে নাম জড়িয়েছে বিধায়ক অধিকারী। প্রশ্ন উঠেছে তাঁর মেয়ে কিভাবে শিক্ষক নিয়োগের চাকরি পেলেন। আর প্রশ্ন তুলেছেন খোদ বিচারপতি।

রাষ্ট্রবিজ্ঞানের শিক্ষক নিয়োগের সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। এছাড়াও উচ্চ আদালতে তরফে জানানো হয়েছে যে রাতারাতি সরাতে হবে মন্ত্রীকে। যার কারণে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং রাজ্যপাল জগদীপ ধনকরকে সুপারিশ করেছেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। এমনকি আজ থেকেই সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। প্রশ্ন উঠেছে, মেধাতালিকায় না থেকেও চাকরি পেয়েছেন মন্ত্রীর মেয়ে?

একই সঙ্গে আদালত জানিয়েছে, আদালতের কোনও নির্দেশ নয় মন্ত্রীকে সরিয়ে দেওয়া। কিন্তু আদালত সুপারিশ করছে স্বচ্ছতার সঙ্গে যেন শিক্ষক নিয়োগ হয়। আজ রাত ৮টার মধ্যে পড়ে পরেশ অধিকারীকে জিজ্ঞাসাবাদ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিভিন্ন সময় বিভিন্ন নিয়োগ এর দুর্নীতি হয়েছে। এমনকি একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগেই এবার সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হল।

হাইকোর্টের তরফে সিবিআইকে নির্দেশ দিয়ে জানানো হয়েছে, দুর্নীতির গোড়া থেকে জট ছাড়াতে হবে। পাশাপাশি আরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ৮ জুনের মধ্যে কলকাতা হাইকোর্টে রিপোর্ট পেশ করবে সিবিআই।