রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে কলম ধরেছেন সাংবাদিক! ছত্তিশগড়ের জেলে জায়গা হল পত্রিকার সম্পাদকের

44

মহানগর ডেস্ক: ছত্তিশগড়ের কংগ্রেস সরকারের সমালোচনা করার অভিযোগে রাজনৈতিক ব্যঙ্গাত্মকমূলক লেখার জন্য রায়পুর-ভিত্তিক সাংবাদিক নীলেশ শর্মাকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। শনিবার তাঁকে রায়পুর থেকে বিলাসপুর জেলে স্থানান্তরিত করা হয়েছে।

রায়পুর পুলিশ শর্মার বিরুদ্ধে তাঁর ফোনে পাওয়া পর্নোগ্রাফিক সামগ্রীর সঙ্গে সম্পর্কিত আরও অভিযোগ যুক্ত করার পরিকল্পনা করেছেন। পুলিশ কর্মকর্তারা বলেছেন, এই সাংবাদিককে গ্রেফতার করার ফলে সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক প্রতিবাদ শুরু হয়েছে।

নীলেশ শর্মা, যিনি অনলাইন পোর্টাল Indiawriters.co.in এবং এরই ম্যাগাজিনের সম্পাদক পদে ছিলেন। বুধবার রায়পুর পুলিশের সাইবার সেল দ্বারা গ্রেফতার করা হয়। তিনি ‘ঘুরওয়া কে মাটি’ শিরোনামের একটি কলামের অধীনে একাধিক নিবন্ধ পোস্ট করেছিলেন। এই রাজনৈতিক ব্যঙ্গের কাল্পনিক চরিত্রগুলি বর্তমান সরকারের মন্ত্রী এবং বিধায়কদের সঙ্গে সাদৃশ্যপূর্ণ বলে অভিযোগ তুলে তাঁর বিরুদ্ধে কংগ্রেস কর্মী দ্বারা দায়ের করা অভিযোগের বিরুদ্ধে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়।

শনিবার প্রকাশিত এক বিবৃতিতে, রায়পুর পুলিশ দাবি করেছে, “তাঁরা শর্মার ফোনে পর্নোগ্রাফিক সামগ্রী পেয়েছে। সে পতিতাবৃত্তির সঙ্গে জড়িত মহিলাদের সঙ্গেও যোগাযোগ রাখত। আমরা লোকেদের সঙ্গে আপত্তিকর কথোপকথনও পেয়েছি।”

এছাড়াও তাঁর মোবাইল ফোনে গোপন সরকারি নথি ও অন্যান্য কাগজপত্রও পেয়েছে পুলিশ। সে বিষয়ে পুলিশ আধিকারিক বলেন, “সরকারের কারও সাহায্য ছাড়া এই কাগজপত্রগুলি অ্যাক্সেস করা সম্ভব নয়। আমরা তদন্ত করছি কারা কারা তাঁর সঙ্গে কাজ করছিল সেটা খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে।”

এদিকে, রাজনৈতিক ব্যঙ্গাত্মকমূলক লেখার জন্য শর্মাকে গ্রেফতার করা নিয়ে, রাজ্যের সিদ্ধান্ত নিয়ে দেশজুড়ে সাংবাদিকরা প্রশ্ন তুলেছেন। বিষয়টি নিয়ে ক্ষমতাসীন কংগ্রেসকে নিশানা করেছে বিজেপি। বিজেপি নেতা এবং রাজ্যের ইনচার্জ ডি পুরন্দেশ্বরী বলেন, “আমরা সাংবাদিকদের হয়রানির বিষয়ে সরকারকে প্রশ্ন করতে যাচ্ছি। সাংবাদিকদের সুরক্ষা দেওয়ার জন্য রাজ্যের আইন কোথায়!”