চোর-পুলিশ খেলার অবশেষে জালে কালিয়াগঞ্জ ধর্ষণ-কাণ্ডে অভিযুক্ত তৃতীয় যুবক

5
kolkata news

Highlights

  • নাটকীয় ভাবে অবশেষে পুলিশের জালে
  • গ্রেফতার উত্তর দিনাজপুর কালিয়াগঞ্জ গণধর্ষণ-কাণ্ডে পলাতক তৃতীয় অভিযুক্ত সুজন বর্মন
  • ঘটনার পর থেকেই গা ঢাকা দিয়েছিল সুজন


নিজস্ব প্রতিনিধি, কালিয়াগঞ্জ:
নাটকীয় ভাবে অবশেষে পুলিশের জালে উত্তর দিনাজপুর কালিয়াগঞ্জ গণধর্ষণ-কাণ্ডে পলাতক তৃতীয় অভিযুক্ত সুজন বর্মন। ঘটনার পর থেকেই গা ঢাকা দিয়েছিল সুজন। কালিয়াগঞ্জ পুলিশের সঙ্গে সে লাগাতার খেলছিল চোর-পুলিশ খেলা। তবে শেষরক্ষা হল না। সোমবার ভোর ৬ নাগাদ দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা থেকে কালিয়াগঞ্জ ঢোকার মুখেই কালিয়াগঞ্জ পুলিশের হাতে গ্রেফতার হল পলাতক সুজন বর্মন। সোমবার পুলিশ অভিযুক্তকে উত্তর দিনাজপুর আদালতে পাঠিয়ে দিয়েছে।

বর্ষবরণের রাতে কালিয়াগঞ্জের ধনকৈল এলাকায় এক হোটেলকর্মী দু’দফায় ধর্ষিতা হন। ৩ যুবক এই ঘটনায় অভিযুক্ত ছিল। ২ অভিযুক্ত যুবক আগেই গ্রেফতার হলেও ঘটনার পর থেকেই পলাতক ছিল অভিযুক্ত সুজন বর্মন। কালিয়াগঞ্জ পুলিশ সুজনকে হন্যে হয়ে খুঁজছিল। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঘটনার পরেই দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় গা ঢাকা দিয়েছিল অভিযুক্ত সুজন বর্মন। সেই খবর জোগাড় করে ফেলেছিল কালিয়াগঞ্জ পুলিশ। কিন্তু পুলিশ জাল গুটিয়ে সুজনকে ধরার চেষ্টা করলেও বারংবার সুজন পুলিশি জাল গোটানোর আগেই নিজের আস্তানার পরিবর্তন করছিল দক্ষতার সঙ্গে।

তবে পুলিশি তৎপরতায় নাজেহাল হয়ে রবিবার গভীর রাতে অভিযুক্ত সুজন উত্তর দিনাজপুর এসে আইনি সহায়তা নেওয়ার পরিকল্পনা করে। তবে শেষরক্ষা হয়নি সুজনের। তার আসার খবর আগাম পেয়েই কালিয়াগঞ্জের হলদিবাড়ি এলাকা থেকে বালুরঘাট রায়গঞ্জ রাজ্য সড়কে একটি পিকআপ ভ্যান থামিয়ে সেই গাড়ি থেকেই কালিয়াগঞ্জ পুলিশ গ্রেফতার করে সুজনকে। সোমবার সুজনকে উত্তর দিনাজপুর আদালতে পাঠায় পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, হোটেলকর্মী তরুণীকে ধর্ষণের ঘটনায় নিজের জড়িত থাকার কথা পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে অভিযুক্ত সুজন বর্মন।