ঘর সামলানো কম কথা নয়, গৃহবধূদের বেতন দেওয়ার দাবি কমল হাসানের

29
bengali news

Highlights

  • গৃহকর্ম একটি বড় চাকরির সমান, এর জন্য বেতন পাওয়া উচিত, এমনটাই মনে করেন কমল হাসান
  • তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার বাসনাতে রাজনৈতিক দল বানিয়েছেন কমল হাসান, এমনটাই মত রাজনৈতিক মহলের একাংশের
  • তামিলনাড়ুর বিধানসভার ভোটে জিততে এখন থেকেই ময়দানে নেমেছেন কমল

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ‘গৃহকর্ম একটি বড় চাকরির সমান, এর জন্য বেতন পাওয়া উচিত,’ এমনটাই মনে করেন কমল হাসান। অভিনয় জগত থেকে রাজনীতিতে এসেছেন কমল। আর তারপরেই তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার বাসনাতে রাজনৈতিক দল বানিয়েছেন কমল হাসান, এমনটাই মত রাজনৈতিক মহলের একাংশের । আগামী ২০২১ সালে তামিলনাড়ুর বিধানসভা নির্বাচনে মক্কল নিধি মাইয়াম দলের হয়ে ভোটেও লড়তে দেখা যাবে কমলকে। আর তাই এখন থেকেই ভোটপ্রচারে নেমে পড়েছেন মক্কল নিধি মাইয়াম-এর সভাপতি কমল হাসান।

এদিন তিনি ট্যুইট করে জানান, আগামী ২০২১-এর তামিলনাড়ুর নির্বাচনে কী কী পরিবর্তন দেখতে চাইছে তাঁর দল। এদিন ট্যুইটে কমল লেখেন, ”গৃহকর্ম একটি বড় চাকরির সমান, এর জন্য বেতন পাওয়া উচিত। গৃহবধূদের বেতন দেওয়ার এই পরিকল্পনা কার্যকরী করার সময় এসে গিয়েছে এবং আমাদের এটা শুরু করতে হবে।” এরই পাশাপাশি তাঁর রাজ্যে মহিলাদের ক্ষমতায়ন নিয়েও নানা প্রস্তাব দিয়েছেন কমল হাসান। অভিনেতা এও জানান তাঁর দল এমএনএম আগামী বিধানসভা নির্বাচনে ভোট প্রচারের কমর্সূচি হিসাবে সামাজিক বিষয়ে নানা পরিবর্তনের জন্য বিশেষ সংকল্প গ্রহণ করেছে।

যার মাধ্যমে তামিলনাড়ুতে বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনতে সক্ষম হবেন, এমনটাই মনে করেন কমল হাসান। অভিনেতা এও জানান তাঁর এই মিশনের আওতায় রয়েছে তামিলনাড়ুতে গৃহবধূদের মাস মাইনের ব্যবস্থা করা। তিনি এও স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন তামিলনাড়ুর আদিবাসীদের উন্নতি হলেই রাজ্যটির সার্বিক উন্নয়ন হবে। রাজনৈতিক মহলের ধারণা, হাতে মাত্র আর একটাই বছর তাই তামিলনাড়ু বিধানসভার ভোটে জিততে এখন থেকেই ময়দানে নেমেছেন কমল।

কমল এও জানিয়েছেন শুধুমাত্র পাইয়ে দেওয়ার রাজনীতি না করে, সাধারণ মানুষদের উন্নয়নটাই হবে তাদের লক্ষ্য। গত দু’বছর আগে তামিলের রাজনীতিতে আনুষ্ঠানিকভাবে পদাপর্ণ করেন রূপোলি পর্দার এই অভিনেতা। যদিও কমল হাসানের দলের নির্বাচনী রেকর্ড যথেষ্ট আশাপ্রদ নয় তবুও চমকপ্রদ কোনও ঘটার আশাতেই বর্ষীয়ান এই প্রতিভাবান অভিনেতা চেষ্টা করে চলেছেন।