Home Kolkata চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন বিখ্যাত শিশু সাহিত্যিক ভবানীপ্রসাদ মজুমদার

চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন বিখ্যাত শিশু সাহিত্যিক ভবানীপ্রসাদ মজুমদার

by Mahanagar Desk
52 views

মহানগর ডেস্ক:   ভবানীপ্রসাদ মজুমদারের বিখ্যাত সেই কবিতা যা আজও বাঙালির জীবনের সঙ্গে জড়িয়ে। ইংরাজি মাধ্যমে পড়াশোনা করা ছেলেমেয়েদের বাবা-মায়ের গর্ব নিয়ে তৈরি ‘বাংলাটা ঠিক আসে না’ একমুহূর্তে ছড়িয়ে পড়েছিল চারিদিকে। ভাষার জন্য আমরণ লড়াই করে গিয়েছে। সেই যাত্রাপথে এবার সমাপ্তি ঘটল।  প্রয়াত ‘”আমার ছেলের বাংলাটা ঠিক আসে না’ খ্যাত কবি ভবানীপ্রসাদ মজুমদার।

ভবানী প্রসাদ মজুমদারের প্রয়াণ সাহিত্য জগতে, বিশেষ করে শিশুসাহিত্যের ক্ষেত্রে একটি যুগের অবসান ঘটিয়েছে। তার বিশিষ্ট কর্মজীবন, হাস্যরস, সামাজিক ব্যঙ্গ এবং অন্তর্দৃষ্টিপূর্ণ ভাষ্যের একটি অনন্য মিশ্রণ দ্বারা চিহ্নিত, তাকে সমস্ত বয়সের পাঠকদের কাছে প্রিয় করেছিল। হাওড়ার শান্ত পরিবেশে জন্ম নেওয়া মজুমদার একজন লেখক হিসেবে একটি দীর্ঘ যাত্রার ভিত্তি তৈরি করেছিল। কবি মূলত ছোটদের মজার মজার ছড়া-কবিতা লেখায় বিশেষ পারদর্শী ছিলেন। তাঁর প্রকাশিত ছড়ার সংখ্যা কুড়ি হাজারেরও বেশি। ছড়া নিয়ে নিরন্তর নানা ধরণের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতেও ভালোবাসেন তিনি। ভবানীপ্রসাদ মজুমদারের প্রকাশিত গ্রন্থের মধ্যে রয়েছে, মজার ছড়া, সোনালি ছড়া, কোলকাতা তোর খোল খাতা, হাওড়া-ভরা হরেক ছড়া, ডাইনোছড়া প্রভৃতি। তিনি সত্যজিৎ রায় ও রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে নিয়ে লিখেছেন- ছড়ায় ছড়ায় সত্যজিৎ এবং রবীন্দ্রনাথ নইলে অনাথ। চিন্তা-উদ্দীপক আখ্যানের সাথে বিনোদনকে প্রভাবিত করার ক্ষমতা তার কাজগুলিকে কেবল উপভোগ্যই করেনি বরং সাংস্কৃতিকভাবেও তাৎপর্যপূর্ণ করেছে। তার গল্পগুলির মাধ্যমে, তিনি দক্ষতার সাথে সামাজিক সূক্ষ্মতাগুলিকে তুলে ধরেন। মজুমদারের উত্তরাধিকার তাঁর লিখিত কথার বাইরেও বিস্তৃত; এটি প্রজন্মকে অতিক্রম করার এবং পাঠকদের মধ্যে ঐক্য গড়ে তোলার গল্প বলার ক্ষমতার সারমর্মকে মূর্ত করে।

সাহিত্যিক সম্প্রদায়, অনুরাগী এবং প্রশংসকদের কাছ থেকে সমবেদনা প্রকাশ অগণিত জীবনে তার গভীর প্রভাবকে বোঝায়। তাঁর চলে যাওয়া তাদের হৃদয়ে শূন্যতা তৈরি করে যারা তাঁর বইয়ের পাতায় সান্ত্বনা এবং আনন্দ খুঁজে পেয়েছিল।শোকের মধ্যে, এটা জেনে সান্ত্বনা পাওয়া যায় যে তার সাহিত্যিক অবদানের মাধ্যমে তার উত্তরাধিকার স্থায়ী হবে।বিশ্ব তার প্রয়াণে শোক প্রকাশ করে, অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার ব্যবস্থা এবং স্মারক পরিষেবার ঘোষণা অপেক্ষা করছে। তবুও, এমনকি মৃত্যুতেও, মজুমদারের কাজ বিশ্বব্যাপী পাঠকদের জন্য সান্ত্বনা এবং হাসি প্রদান করে একটি কালজয়ী ধন হিসাবে কাজ করে চলেছে। তাঁর লেখাগুলি চিরকাল সাহিত্যের রূপান্তরকারী শক্তি এবং গল্পকারের নৈপুণ্যের স্থায়ী প্রভাবের অনুস্মারক হিসাবে কাজ করবে। ভবানী প্রসাদ মজুমদারের উত্তরাধিকার আগামী প্রজন্মের জন্য লালন করা হবে, যা সাহিত্যিক জগতে তার দীর্ঘস্থায়ী প্রভাবের প্রমাণ হয়ে থেকে যাবে।

 

You may also like

Mahanagar bengali news

Copyright (C) Mahanagar24X7 2024 All Rights Reserved