স্কচ পুরস্কারের বিশ্বাসযোগ্যতা নেই, পুরোটাই ভাঁওতা! : বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী

10

মহানগর ডেস্ক: ১৬ই নভেম্বর থেকে রাজ্যের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো খোলার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে সরকার। তাঁর আগেই কোভিড কালে শিক্ষা বিস্তারের ক্ষেত্রে রাজ্যের স্কুল ও উচ্চ শিক্ষা দফতর পেয়েছে স্কচ পুরস্কার (SKOCH Awards)‌। এই দফতর ছাড়াও পর্যটন ও অর্থের মতো দফতর এই পুরস্কার পেয়েছে।

স্বভাবতই উচ্ছসিত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সন্তোষ প্রকাশ করেছেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। কিন্তু এই পুরস্কার নিয়ে এবার মমতা সরকারকে খোঁচা দিলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। এক টুইট বার্তায় এদিন স্কচ পুরস্কারের বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তিনি।

এক টুইট বার্তায় তিনি লেখেন, “রাজ্য সরকারের কিছু দফতর স্কচ পুরস্কার পেয়েছে। কিন্তু এই পুরস্কারটি আদৌ বিশ্বাসযোগ্য কী? মনে হয় যারাই আবেদন করে তাঁরাই এই পুরস্কার পেয়ে যায়। মোটা অর্থের বিনিময়ে দামী স্টল কিনতে পারলেই কেল্লাফতে!”

এখানেই থেমে থাকেননি শুভেন্দু। তাঁর সংযোজন, “যেই দফতর যত বেশি টাকা দেবে সেই দফতর তত বড় পুরস্কার পাবে। উদাহরণস্বরূপ যদি কারিগরি প্রশিক্ষণ দফতর ১২ লাখ টাকা দিয়ে স্টল কিনলে স্বর্ণ পদক পাবে, অন্য কোনো দফতর ২ লাখ টাকা খরচা করে স্টল দিলে রজত পদক পাবে।”

প্রসঙ্গত পর্যটনের ক্ষেত্রে এই পুরস্কার প্রাপ্তির খবর জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী ট্যুইটারে লিখেছিলেন, “আনন্দের সঙ্গে জানাচ্ছি রাজ্য পর্যটন দফতর করোনা অতিমারির মধ্যেও অসামান্য কাজের জন্য সম্মানজনক স্কচ গোল্ড অ্যাওয়ার্ড জিতেছে৷ কঠিন পরিশ্রম এবং দায়বদ্ধতার জন্য সব আধিকারিক এবং সদস্যদের অভিনন্দন৷ আরও বড় লক্ষ্যে এগিয়ে চলি আমরা৷”