আমাদের মারার জন্য নরক তৈরি করছে, শেষ তিন দফার ভোট নিয়ে কমিশনকে আক্রমণ মহুয়া মৈত্রের

6
kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: ‘কেন নির্বাচন কমিশন আমাদের মারার জন্য নরক তৈরি করছে? কেন মহামারি আইন চালু ও একসঙ্গে ভোটগ্রহণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হল না? ভোটারদের জীবনের থেকে বিজেপি প্রার্থীদের প্রচারের অধিকার বেশি জরুরি? উন্মাদের মতো আচরণ করছে নির্বাচন কমিশন।’ টুইট করে এই ভাষায় নির্বাচন কমিশনকে আক্রমণ করলেন কৃষ্ণনগরের তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র।

গত শনিবার কলকাতায় নির্বাচন আধিকারিকের দফতরে একটি সর্বদলীয় বৈঠক হয়েছিল। ওই বৈঠকে তৃণমূলের তরফে প্রস্তাব দেওয়া হয়, বাকি তিন দফার ভোট একসঙ্গে করলে তাদের কোনও আপত্তি নেই। যদিও, তৃণমূলের সেই প্রস্তাবের সঙ্গে সহমত হয়নি বাম এবং বিজেপি। তাই কমিশনের তরফ জানিয়ে দেওয়া হয় কোভিড-বিধি মেনে বাকি ত্ন দফার ভোট নির্ঘণ্ট অনুযায়ী হবে।

 

​গত কয়েকদিন ধরে দেশের পাশাপাশি এই রাজ্যেও কোভিড সংক্রমণের গ্রাফ চড়চড়িয়ে বাড়ছে। একইসঙ্গে বাড়ছে মৃত্যুর হারও। এমন পরিস্থিতিতে বাকি তিন দফার ভোট নিয়ে একাধিক মহল থেকে উঠছে প্রশ্ন। রাজ্যের শাসকদল তৃণমূলের পাশাপাশি কোনও কোনও মহল থেকে বলা হচ্ছে, বাকি তিন দফার ভোট এক দফাতেই সেরে ফেললে ভাল হতো। একাধিক কারণ দেখিয়ে নির্বাচন কমিশন তাদের দাবিতে অনড়। নির্বাচন কমিশনের সেই মনোভাব নিয়ে আক্রমণ করে টুইট করেছেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র।

এদিকে, আজ সোমবার চাকুলিয়ার সভায় এই বিষয়টি নিয়ে কমিশনকে আক্রমণ করেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি কমিশনের কথা উল্লেখ না করে বলেন, ‘বিজেপির কথা শুনে মানুষের জীবন নিয়ে খেলবেন না’। একই সঙ্গে তিনি বলেন, বহিরাগতদের নিয়ে এসে এই রাজ্যে করোনা ছড়িয়েছে বিজেপি।