Mahua moitra: নূপুর বাড়িতে আরামে দিন কাটাচ্ছে আর জুবের হেফাজতে, দেশে গণতন্ত্র বলে কী কিছু নেই!: প্রশ্ন মহুয়ার

102
mahua moitra on nupur sharma

মহানগর ডেস্ক: কুরুচিকর এবং সমাজে বিভেদ সৃষ্টিকারী মন্তব্য করার জেরে গ্রেফতার করা হয়েছে অলট নিউজের সাংবাদিক জুবেরকে (Juber Ahmed)। এই ঘটনাকে ঘিরে দেশের বিরোধীদলের নেতা-নেত্রীরা চড়াও হয়েছে বিজেপি সরকারের ওপর। তাঁদের দাবি, ইচ্ছা করে শাসকদলের স্বার্থচরিতার্থ করার জন্য দিল্লি পুলিশ গ্রেফতার করেছে সাংবাদিককে। এবার এই ঘটনাকে নিয়েই টুইট করলেন সাংসদ মহুয়া মৈত্র (Mahua Moitra)। তিনি বলেন, কুরুচিকর মন্তব্য করেছিলেন নূপুর শর্মাও (Nupur Sharma)। তিনিও একটি ধর্মের ভাবাবেগে আঘাত করার মত কথা বলেছিলেন। কিন্তু তাঁর কোন শাস্তি হল না। এদিকে, হাজতে যেতে হল সংবাদমাধ্যমের কর্মীকে।

আরও পড়ুন: বিরোধীরা জিতেছো মুখ ফুটে বোলো, মমতার পুলিশেই ভোট হয়েছিল: দেবাংশু ভট্টাচার্য

এদিন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র টুইট করে বলেন, ‘‘জুবের পুলিশি হেফাজতে, আর ওদিকে নূপুর শর্মা বহাল তবিয়তে বাড়ি বসে অপেক্ষা করছেন, সুযোগ বুঝে তাঁকে বিজেপি দলে ফিরিয়ে আনবে।’’ প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছিল, সাংবাদিক জুবেরকে নূপুর শর্মা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করার জন্যই গ্রেফতার করা হয়েছে। কিন্তু পরবর্তীকালে দিল্লি পুলিশ জানায়, ২০১৮ সালে উস্কানিমূলক মন্তব্য করায় গ্রেফতার করা হয়েছে তাঁকে।

তবে এই ঘটনায় বিরোধীদের মত, মূলত উপর মহলকে খুশি করতেই গ্রেফতার করা হয়েছে জুবেরকে। দেশের সংবাদ মাধ্যমের কর্মী যে মাধ্যমকে চতুর্থ স্তম্ভ বলে গণ্য করা হয়েছে সংবিধানে। সেই মাধ্যমের সঙ্গে যুক্ত কর্মীরা আজ বিপদের মুখে। এমন পরিস্থিতিতে কেন চুপ দেশের মানুষ? কেন নিরব দর্শকের ভূমিকা পালন করছে তাঁর সহ কর্মীরা তথা সংবাদ সংস্থাগুলি? তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া।

এছাড়াও মহুয়া আরো একটি টুইটে বলেন, জুবেরের ঘটনাটির পর এ বার সত্যিই দেখার সময় এসেছে, এই গণতন্ত্রের মূল ভিত্তিতে কোনও খামতি রয়েছে কি না! দেশের মানুষের কাছে কী এই ভাবে ঠিক তথ্য পৌঁছানো সম্ভব? নাকি ভুল তথ্য প্রচার করতে চাইছে সরকার! যার জন্য এই ক্রিয়াকলাপ?