Mahua Moitra: কালী বিতর্কের জের! বদলে গেল মহুয়ার হোয়াটসঅ্যাপ ডিপি

74

মহানগর ডেস্ক: কালী (Kali) নিয়ে নতুন করে বিতর্ক শুরু হয়েছে তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্রের (Mahua Moitra) মন্তব্যকে ঘিরে। বিরোধী দলগুলির তরফ থেকে মহুয়া মৈত্রের ব্যক্তিগত মন্তব্যকে হাতিয়ার করে আক্রমণ করা হচ্ছে, রাজ্যের শাসক দলকে। এমন পরিস্থিতিতে দলের তরফ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, এই মন্তব্য একান্তই সংসদের ব্যক্তিগত, এই মন্তব্যে সমর্থন নেই দলের। এরই মধ্যে দলের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলকে আনফলো করেছেন কৃষ্ণনগরের সাংসদ। এবার মহুয়ার হোয়াটসঅ্যাপের বদলে গেল প্রোফাইল ফটো। যেখানে দেখা যাচ্ছে, এবার সংসদে নিজের ছবি নয়, সেখানে জায়গা করে নিয়েছেন দেবী কালী।

আরও পড়ুন: শ্যামাপ্রসাদের জন্মদিনে বিশেষ পদযাত্রা বিজেপির, নেতৃত্বে শুভেন্দু – অগ্নিমিত্রারা

মহুয়া মৈত্রীর হোয়াটসঅ্যাপের ডিপিতে দেখা যাচ্ছে, কালীঘাটের দেবী কালীর চিত্রপট। যদিও সকালেই তিনি বিরোধীদের তোপের জবাব দিতে জানিয়েছিলেন, তিনি নিজে একজন কালি উপাসক, বাঙালিরা যে দেবী কালীর পুজা করেন তিনি নির্ভীক এবং শান্ত।

মূলত এই বিতর্কের জন্ম হয় দক্ষিণী পরিচালিকা লিনা মানিমেকালাইয়ের তথ্যচিত্রের পোস্টারকে ঘিরে। যেখানে দেখা যায়, চন্ডাল দেবী কালি মুখে সিগারেট ধরে ধূমপান করছে। যা প্রকাশ্যে আসবেই শুরু হয়েছে বিতর্ক। পরিচালিকার এই নতুন ভাবনাকে ধর্মীয় আঘাত হানার বলে দাবি জানিয়েছেন, বহু হিন্দুরা। এরই মধ্যেই গত সোমবার একটি সংবাদ মাধ্যমের তরফ থেকে সাংসদ মহুয়াকে এ বিষয়ে তাঁর চিন্তাধারা কী বা এ বিষয়ে তাঁর কী মনে হয়, জিজ্ঞেস করা হলে তিনি যে উত্তর দিয়েছিলেন সেই উত্তরকে ঘিরেই তৈরি হয় বিতর্ক।

যদি এরই মধ্যেই কলকাতার বউবাজার থানায় মহুয়া মৈত্রের নামে ৫৬টি অভিযোগ জমা দিয়েছেন বিজেপির মহিলা মোর্চার সদস্যরা। তাঁরা তৃণমূল সাংসদদের গ্রেফতারির দাবি জানিয়েছেন। তাঁর মন্তব্যকে ঘিরে বিষয়টি এত জল খোলা হয়ে যাবে, কৃষ্ণনগরের সাংসদ নিজেও ভাবতে পারেননি। যার ফলে এবার বিতর্কের আঁচ কমাতে নিজের ডিপিতে এবার দেবী কালীকে তুলে ধরেছেন বলেই মনে করা হচ্ছে।