Makali -Complaint against Mahua Moitra: মা কালীকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য, তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্রর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ বিজেপির, গ্রেফতারের দাবি

64
bjp complains against mohua motra
মা কালীকে অপমান, তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্রর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ বিজেপির।

মহানগর ডেস্ক: মা কালীকে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য ( Controversial Comment) করার জন্য তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্রর বিরুদ্ধে থানায় (Police Complaint) অভিযোগ দায়ের করল বিজেপি( BJP)। এদিন তৃণমূল সাংসদের বিরুদ্ধে তারা দুটি অভিযোগ জানিয়েছে। সকালে প্রথম অভিযোগ করা হয় রবীন্দ্র সরোবর থানায়। অভিযোগ জানান বিজেপি কর্মীরা। অন্যটি করেন পদ্মশিবিরের নেতা রাজর্ষি লাহিড়ি। অভিযোগে জানানো হয় মহুয়া মৈত্র হিন্দুধর্ম ও হিন্দুদের বিশ্বাস  (Hindu Faith) সম্পর্কে কিছু না জেনে ইচ্ছাকৃতভাবে মন্তব্য করেছেন। হিন্দুদের দেবী কালীকে হেয় করার জন্য নিজেই এমন মন্তব্য  করেছেন।

বিজেপি নেতা আরও জানিয়েছেন বর্তমানে রাজ্যজুড়ে সাম্প্রদায়িক সঙ্ঘর্ষ চলছে। এবং সম্পত্তি ধ্বংস করা হচ্ছে। আশ্চর্যের বিষয় পুলিশ এ ব্যাপারে নিষ্ক্রিয় ভূমিকা পালন করছে। তাঁর ঠিক জানা নেই কতগুলো মামলা চলছে। এই পরিস্থিতিতে এই মহুয়া মৈত্রর মন্তব্য আগুনে ঘৃতাহুতি দিয়েছে। তিনি জানান যদি সাংসদের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা না নেওয়া হয়, তাহলে হিন্দুরা পথে নামবেন।  পাশাপাশি বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদের গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন।

তাঁর কথায়, মহুয়া মৈত্র তাদের দলের,তাই তারা কিছুতেই নিজেদের দায়িত্ব এড়াতে পারে না। দল থেকে তাঁকে বহিষ্কার করার দাবি জানিয়েছেন রাজ্য সভাপতি। এদিন বউবাজার থানার সামনে তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদকে অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ দেখান বিজেপির কর্মী-সমর্থকরা। প্রসঙ্গত, দক্ষিণের মহিলা পরিচালকের আসন্ন তথ্যচিত্রের পোস্টারে দেখা যায় মা কালী সিগারেট খাচ্ছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টারের ছবি পোস্ট করার পর সেটি ভাইরাল হয়।

বিতর্কিত পোস্টার নিয়ে ক্ষোভে ফেটে পড়েন। এই ঘটনা হিন্দুদের আরাধ্য দেবীর অপমান বলে সরব হন নেটিজেনরা। দিল্লির আদালতে পরিচালকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। গতকাল একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের অনুষ্ঠানে এ ব্যাপারে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র জানান, মা কালী মাংস খান, মদও খান। এরপরই বিক্ষোভ শুরু হয়। এরপরই তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদের বক্তব্যের সঙ্গে তাদের কোনও যোগাযোগ নেই বলে বিবৃতি দেয়। যদিও এতে সন্তুষ্ট না হয়ে বিজেপি তাঁর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করে।