AYODDHYA INCIDENT: অযোধ্যার সরযূ নদীতে স্নান করার সময় স্ত্রীকে চুমু, পিটিয়ে আধমরা করা হল স্বামীকে!

147
অযোধ্যার সরযূ নদীতে স্নান করার সময় মারধর স্বামীকে

মহানগর ডেস্ক: অযোধ্যার সরযূ নদী পবিত্র নদী ( Sarayu River in Ayodhhya)। একে কলুষিত করা যাবে না। কলুষিত করা হলে মিলবে কঠিন শাস্তি ( stern punishment)। এমনকী নদীতে স্নান করতে এসে নিজের স্ত্রীকেও চুমু খাওয়া যাবে না। আর এই কাণ্ডটাই করে বসেছিল এক ব্যক্তি। আর তার ফল তাকে ভুগতে হল হাতে নাতে। অযোধ্যার সরযূ নদীতে স্নান করছিলেন অনেকেই (Bathing)। যেমন সবাই রোজ করেন। স্নান করতে করতেই নিজের স্ত্রীকে চুমু খেয়েছিলেন ওই ব্যক্তি। আর যায় কোথা! ওই ব্যক্তিকে জল থেকে টানতে টানতে নিয়ে যায় ওখানে যাঁরা স্নান করছিলেন সেইসব লোক। তাকে ঘিরে ধরে অকথ্য গালিগালাজ তো হলই। টানতে টানতে নিয়ে যাওয়া হল নদী থেকে।

তার স্ত্রী অনেক বোঝানোর চেষ্টা করলেও তারা শোনেনি। ভিড়ের মাঝে নিয়ে গিয়ে বেধড়ক মারধর করা হল ওই ব্যক্তিকে। গোটা ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট হওয়ার পর ভাইরাল। ভিডিওয় দেখা গিয়েছে ওই ব্যক্তিকে তার স্ত্রীর কাছ থেকে টানতে টানতে ভিড়ের মধ্যে নিয়ে যাচ্ছে কিছু লোক। একজনকে বলতে শোনা যাচ্ছে অযোধ্যায় এ ধরণের অশালীন কিছু করা যাবে না। স্ত্রী অনেক চেষ্টা করে ক্রুদ্ধ জনতার হাত থেকে বাঁচাতে পারেননি। তারপর ভিড়ের মধ্যে ফেলে উস্তম কুস্তম পেটানো হল। এরপর যা হল সেটা কম ভয়ঙ্কর নয়। মারধর দেওয়ার পর স্বামী-স্ত্রীকে নদীতে ধাক্কা মেরে ফেলে দিল উত্তেজিত জনতা।

এই ঘটনার পর নড়েচড়ে বসেছে পুলিশ। ঘটনার তদন্ত করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সবমিলিয়ে এই ঘটনা সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিচ্ছে পুলিশ। কোতোয়ালি অযোধ্যা থানার ওসিকে ঘটনার তদন্ত করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলা হয়েছে। প্রসঙ্গত, সরযূ নদী হল গঙ্গার সাতটি প্রবাহিত শাখার একটি। এই সরযূ নদীর তীরেই রাম জন্মেছিলেন বলে প্রচলিত বিশ্বাস।