EPL: পেনাল্টি নিলেন না রোনাল্ডো, মিস করলেন আর এক পর্তুগিজ! ঘরের মাঠে হেরেই গেল ম্যান ইউ

24
অ্যাস্টন ভিলার বিরুদ্ধে আক্রমণে উঠছেন রোনাল্ডো।

মহানগর ডেস্ক: ফুটবল বিশ্বে তাঁর ‍‘পেনাল্ডো’ বলেও একটি পরিচিতি রয়েছে। পেনাল্টি থেকে গোল করতে তিনি নাকি সিদ্ধহস্ত। হ্যাঁ, ঠিকই ধরেছেন। ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর কথাই হচ্ছে এখানে। কিন্তু এবার তিনি কী করলেন! এক যুগ পর পুরনো ক্লাব ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডে পা রেখেছেন সিআর সেভেন। তাঁর প্রত্যাবর্তনের পর এই প্রথম পেনাল্টি পেল ম্যান ইউ। আর রোনাল্ডো কি না সেই পেনাল্টি মারতে এলেন না!

তাও আবার তখন ম্যাচের পরিস্থিতি ছিল বেশ গুরুগম্ভীর। এক গোলে পিছিয়ে ম্যান ইউ। ম্যাচের একেবারে শেষ মুহূর্তে। সেই সময় পেনাল্টি পায় তারা। গত এক যুগে পেনাল্টি নেওয়ার ক্ষেত্রে রোনাল্ডোই এগিয়ে থাকেন। কিন্তু সবাইকে অবাক করে আজ অ্যাস্টন ভিলার বিপক্ষে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ইনজুরি টাইমে পাওয়া পেনাল্টি নিতে এগিয়ে এলেন তাঁর স্বদেশীয় ব্রুনো ফার্নান্দেজ।

ভাগ্যের কী পরিহাস! রোনাল্ডোর পর্তুগিজ সতীর্থ আবার সেই পেনাল্টি মিস করলেন। যার জেরে ঘরের মাঠে অ্যাস্টন ভিলার কাছে ১-০ ব্যবধানে হেরে গেল রেড ডেভিলস। ম্যাচের আগেই উত্তেজনা ছড়িয়েছিলেন ইউনাইটেড কোচ ওলে গানার সুলশার। তাঁর দল প্রিমিয়ার লিগের প্রথম পাঁচ ম্যাচে কোনও পেনাল্টি পায়নি। এই নিয়ে প্রশ্ন করতেই দায়টা লিভারপুল কোচ জুরগেন ক্লপের ঘাড়ে দিয়েছিলেন। বলেছিলেন, ক্লপ এই নিয়ে অভিযোগ করাতেই নাকি তাঁরা প্রাপ্য পেনাল্টি পাচ্ছেন না।

ম্যাচের আগের দিন সুলশার আশা করেছেন, এবার থেকে তাঁর দল প্রাপ্য পেনাল্টি পাবে। কাকতালীয় ভাবে সেটাই হল। পেনাল্টি পেল ম্যান ইউ। সেটাও আবার নির্ধারিত সময়ের খেলা শেষে। ঘরের মাঠে ইউনাইটেড তখন ০-১ ব্যবধানে পিছিয়ে। ৮৮ মিনিটে গোল করেছিলেন ডিফেন্ডার কোর্টনি হস। ইনজুরি টাইমে আবারও এই হসই পেনাল্টি উপহার দিলেন প্রতিপক্ষকে!

কেরিয়ার জুড়ে এরকম স্নায়ুচাপের মুহূর্তে পেনাল্টি নেওয়ার জন্য বিখ্যাত পর্তুগিজ অধিনায়ক। কিন্তু সবাইকে বিস্মিত করে এগিয়ে এলেন ফার্নান্দেজ। তিনিও অবশ্য পেনাল্টির জন্য বিখ্যাত। ইউনাইটেডে যোগ দেওয়ার পর দলটির এই নিয়ে দুশ্চিন্তা দূর করেছেন এই পর্তুগিজ। কিন্তু আজ তাঁর শট ঠেকাতে এমিলিয়ানো মার্তিনেজকে কোনও কষ্টই করতে হল না। বারের অনেক ওপর দিয়ে বল বাইরে পাঠালেন এই মিডফিল্ডার। পেশাদার কেরিয়ারে এই প্রথম পেনাল্টি থেকে শট পোস্টে রাখতে পারেননি ফার্নান্দেজ।

ওল্ড ট্র্যাফোর্ড তখন স্তব্ধ। নতমস্তক ফার্নান্দেজ। তাঁকে সান্ত্বনা দিতে এগিয়ে গেলেন রোনাল্ডো নিজেই। কিন্তু ততক্ষণে যা হওয়ার হয়ে গেছে। ২০০৯ সালের পর ইউনাইটেডের মাঠ থেকে প্রথম জয় পেল ভিলা। শুধু তাই নয়, গত ১৮ বারের মুখোমুখিতে লিগে এই প্রথম জয় পেয়েছে অ্যাস্টন ভিলা। ১৯৮৩ সালের পর ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে দলটির মাত্র দ্বিতীয় জয় এটি! ইউনাইটেডের জার্সিতে অ্যাস্টন ভিলার বিপক্ষে এর আগে ১৪ বার মাঠে নেমে কখনও না হারা রোনাল্ডোও পেলেন প্রথম হারের স্বাদ!