বহু গার্ড ও চালক আক্রান্ত করোনায়, হাওড়া ও শিয়ালদা ডিভিশনে বাতিল বেশ কিছু লোকাল ট্রেন

6
kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: গার্ড ও চালকদের করোনা সংক্রমণের জেরে শিয়ালদার পাশাপাশি হাওড়া ডিভিশনেও লোকাল ট্রেন বাতিল করা হয়েছে। রেল কর্মীদের মধ্যে ক্রমেই বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। এই কারণে শিয়ালদা ও হাওড়া ডিভিশনে একাধিক লোকাল ট্রেন বাতিল করা হয়েছে বলে রেল সূত্রে জানা গিয়েছে। তবে, পরিষেবা স্বাভাবিক রাখার জন্য কোনও দূরপাল্লার মেল ট্রেন বাতিল করা হয়নি। রাজ্যে করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে রেলের অবস্থাও তথৈবচ। দৈনিক পরিষেবার সঙ্গে সরাসরি যুক্ত থাকা রেল কর্মীদের মধ্যে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ। ফলে প্রভাব পড়েছে লোকাল ট্রেনের পরিষেবায়। সোমবার সপ্তাহের প্রথম দিনেই শিয়ালদা এবং হাওড়া ডিভিশনে কয়েক জোড়া লোকাল ট্রেন বাতিল করতে হয়েছে বলে রেল সূত্রে খবর।

পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক জানিয়েছেন, রেল পরিষেবা স্বাভাবিক রাখতে সব রকমের প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে। গার্ড ও চালকদের কোভিড সংক্রমণের কারণে কিছু লোকাল ট্রেন বাতিল হয়েছে। এছাড়াও সিঙ্গুর এবং নালিকুল স্টেশনের মধ্যে নন ইন্টারলকিং কাজের জন্য কিছু ট্রেন বাতিল করতে হয়েছে। অন্যদিকে, কোভিড পরিস্থিতিতে বর্তমানে সমস্ত ইএমইউ রেক সম্পূর্ণভাবে জীবাণুমুক্তকরণের কাজ হচ্ছে। যাত্রী পরিষেবা দেওয়ার আগে যেখানে ট্রেন দাঁড়ায় সেই স্থানে জীবাণুমুক্ত করা হচ্ছে। সকল কম দূরত্বের প্যাসেঞ্জার ট্রেন এবং বেশি দূরত্বে ট্রেন গুলির সিট, শোওয়ার জায়গা সিটের চামড়া-সহ সমস্ত স্পর্শযোগ্য জায়গায় জীবাণুমুক্ত করার কাজ শুরু হয়েছে। স্টেশন চত্বরে প্ল্যাটফর্ম, ইউরিনাল, টয়লেট, যাত্রী প্রতীক্ষালয়, টিকিট বুকিং এলাকা, পানীয় জল সহ বিভিন্ন জায়গায় পরিষ্কার এবং জীবানুমুক্তকরণের কাজ হচ্ছে। প্ল্যাটফর্ম, ট্রেনের লাইন এবং এর সন্নিহিত এলাকা জেড এবং স্ক্র‍্যাবার মেশিন দিয়ে পরিষ্কার করা হচ্ছে।

পূর্ব রেলের তরফ থেকে কোভিড পরিস্থিতিতে লড়াই করার জন্য যাত্রীদের বাধ্যতামূলক ভাবে মাস্ক ব্যবহার করতে অনুরোধ জানানো হয়েছে। এর পাশাপাশি সঙ্গে হ্যান্ড স্যানিটাইজার রাখা, সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার কথাও বলা হয়েছে। এর সঙ্গে শরীর খারাপ থাকলে ট্রেনে যাতায়াত না করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। রেল যাত্রীদের অনুরোধ করা হচ্ছে, রেল চত্বরের মধ্যে যেখানে সেখানে মাস্ক ফেলা বা ছড়ানো যেন না হয়। এটা স্বাস্থ্যবিধির বিরুদ্ধ এবং এতে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পেতে পারে বলে দাবি রেল কর্তৃপক্ষের। মুখে মাস্ক ঢাকা না দিয়ে রেলে সফর করলে রেল কর্তৃপক্ষ ৫০০ টাকা জরিমানা করবে। যেখানে সেখানে থুতু ফেলা বা ছোট ছেটানোর স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর। এর জন্য জরিমানা করা হবে বলে রেল সূত্রে জানা গিয়েছে।

এদিকে, দক্ষিণ-পূর্ব রেলের তরফ থেকে যাত্রীদের কোভিড অ্যাপ্রোপ্রিয়েট বিহেভিয়ার (সিএবি) মেনে চলার ব্যাপারে ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। দক্ষিণ পূর্ব রেলের পক্ষ থেকে যাত্রীদের কাছে আবেদন, স্টেশন চত্বরে মাস্ক ব্যবহার, স্যানিটাইজার ব্যবহার করা, নির্দিষ্ট সময় অন্তর হাত পরিষ্কার করা এবং সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে হবে। স্টেশন এবং ট্রেনের ভেতরে মাস্ক ব্যবহারের ব্যাপারে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। তা সত্ত্বেও অনেক যাত্রী যারা মাস্ক ব্যবহারে অনীহা দেখিয়েছেন এমন ২১ জন যাত্রীকে মোট ৭,৮০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। দক্ষিণ-পূর্ব রেলের তরফ থেকে প্যাসেঞ্জার অ্যাওয়ারনেস ক্যাম্পেনের অংশ হিসেবে বড় বড় স্টেশনের কোভিড প্রোটোকল কীভাবে মানতে হবে সেই নিয়ম সম্বলিত ব্যানার, পোস্টার লাগানো হয়েছে। যাত্রীদের করোনা ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য উৎসাহিত করা হচ্ছে। ট্রেনের কামরা প্রতিদিন জীবাণুমুক্তকরণের কাজ চলছে।