১৫ বছরের কিশোরকে অপহরণ, মুক্তিপণ চাওয়া হল ৫০ লাখ! তারপর….

40

মহানগর ডেস্ক: মুক্তিপণ না নিয়েই অপহৃতকে ফিরিয়ে দিল অভিযুক্তরা! ঘটনাটি ঘটেছে চণ্ডীগড়এ। ১৫ বছরের একটি কিশোরকে অপহরণ করা হয়েছিল। পরিবারের কাছে মুক্তিপণও দাবি করা হয়েছিল। অথচ মুক্তিপণ না নিয়েই ওই কিশোরকে ফিরিয়ে দিল অপহরণকারীরা।

ঠিক কি হয়েছিল?
চন্ডিগড়ের মনিমাজরা এলাকায় ১৫ বছরের ওই বছরের কিশোর তার বন্ধুদের সঙ্গে সাইকেল চালাচ্ছিল। পরিবারের অভিযোগ অনুযায়ী, সাইকেল নিয়ে রেলওয়ে ক্রসিং এর কাছে ওই কিশোর আসতেই মারুতি সুজুকি করে তিন জন লোক এসে কিশোরকে জোর করে অপহরণ করে। তারপর ওই অপহরণকারীরা কিশোরের পরিবারকে ফোন করে অপহরণের বিষয়ে জানায়। মুক্তিপণ হিসেবে ৫০ লক্ষ টাকা চাওয়া হয়। টাকা না দিলে কিশোরকে হত্যা করবে বলেও ভয় দেখায়।

এরপরই কিশোরের পরিবার পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করে। পুলিশ ফাঁদ পেতে কিশোরের বাবা ও বোন মুক্তিপণের টাকা নিয়ে যেতে বলে। অপহরণকারীরা একের পর এক জায়গা বদল করতে থাকে। একাধিক জায়গা বদলের পর অবশেষে মুক্তিপণ না নিয়ে আচমকাই কিশোরকে পাঁচকুলা সেক্টর ২১ সেতুর ফেলে পালিয়ে যায় তারা। পুলিশ কিশোরকে উদ্ধার করে পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেয়। কিশোরের বয়ান অনুযায়ী অপহরণকারীরা তাকে প্রথমে বাল্টানা নিয়ে যায় এবং ক্রমাগত এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় নিয়ে ঘুরতে থাকে। এই এলাকা গুলির মধ্যে যেসব এলাকায় সিসিটিভি ইন্সটল করা আছে, পুলিশ সেখান থেকে ফুটেজ সংগ্রহ করেছে। তবে, এখনও পর্যন্ত কিছু হদিশ পাওয়া যায়নি। ইতিমধ্যেই মনিমাজরা থানায় ভারতীয় দণ্ডবিধি ৩৬৪এ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।