Home Uncategorized MOHAN BHAGWAT: ধর্মের ভিত্তিতে জনসংখ্যার ভারসাম্য নিয়ে মুখ খুললেন আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবত

MOHAN BHAGWAT: ধর্মের ভিত্তিতে জনসংখ্যার ভারসাম্য নিয়ে মুখ খুললেন আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবত

by Silpika Chatterjee
mohan bhagwat, population, hindu country, woman freedom

মহানগর ডেস্কঃ ধর্মের ভিত্তিতে জনসংখ্যার ভারসাম্য গুরুত্বপূর্ণ বলেই মনে করেন আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবত। বুধবার দশেরা উপলক্ষ্যে নাগপুরে আরএসএসদের সদর দফতরে হওয়া অনুষ্ঠানে ভাষণ দেন ভাগবত। সেখানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি জানান জনসংখ্যার নীতি চিন্তাভাবনা করেই নেওয়া উচিত। চলতি বছরের গুজরাত এবং হিমাচলপ্রদেশে রয়েছে বিধানসভা নির্বাচন। তার ঠিক আগে আগেই সংঘ প্রধানের এহেন মন্তব্য অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

বুধবারের অনুষ্ঠানে ভাগবত জানান, ধর্মের ভিত্তিতে জনসংখ্যার ভারসাম্য বজায় না থাকলে ভৌগলিক সীমারেখার বদল ঘটবে। এর পাশাপাশি জন্মের হার, জোর করে ধর্মান্তকরণ, লোভের বশবর্তী হয়ে অনুপ্রবেশ – এগুলিও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছেন তিনি। অন্যদিকে বুধবারের অনুষ্ঠানে আরও একবার ‘অখণ্ড ভারত’ ও ‘হিন্দুরাষ্ট্র’-র কথা শোনা যায় মোহন ভাগবতের গলায়।

নাগপুরের অনুষ্ঠানে আরএসএস প্রধান বলেন হিন্দু রাষ্ট্রর বিষয়ে অনেকেই সহমত পোষণ করেন। আবার অনেকেরই হিন্দু শব্দটি নিয়ে আপত্তি বলেও জানান মোহন ভাগবত। কিন্তু আরএসএসের তরফে হিন্দু শব্দটির উপরেই বিশেষ জোর দেওয়ার কথা সাফ জানিয়ে দেন ভাগবত।

এছাড়াও বুধবার নাগপুরের এই অনুষ্ঠানে মহিলাদের সমানাধিকারের প্রসঙ্গও উঠে এসেছে ভাগবতের কণ্ঠে। তিনি জানান মহিলাদের সমান চোখে দেখতে হবে। মহিলাদের হাতের ক্ষমতা দিতে হবে। নিজের সিদ্ধান্ত যাতে মহিলারা নিজেরাই নিতে পারেন সেইজন্য তাঁদের স্বাধীনতাও দিতে হবে বলেও মতপ্রকাশ করেন তিনি।

এদিন মহিলা পর্বতারোহী সন্তোষ যাদবকে নাগপুরের দশেরা অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে আমন্ত্রণ জানায় আরএসএস। ১৯৯২ সালে সবচেয়ে কম বয়সী এভারেস্ট জয়ীর তকমা পেয়েছিলেন সন্তোষ যাদব । পরবর্তীকালে চিনের দিক থেকেও মাউন্ট এভারেস্টে উঠেছিলেন তিনি। সংঘ পরিবারের ৯৭ বছরের ইতিহাসে এর আগে কোনও মহিলাকে প্রধান অতিথি করা হয়নি। সেই দিক থেকে এই ঘটনা বিরলতম। কংগ্রেসের দাবি, মহিলাদের সম্মান করেনা আরএসএস। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের দাবি, সেই অপবাদ মুছে দিতেই ভারতীয় মহিলা পর্বতারোহীকে এবার নাগপুরের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি করেছে সংঘ পরিবার।

You may also like