Monsoon Skin Problem : বর্ষায় বেশি বাড়ে চর্মরোগ, জ্বালাভাব থেকে চুলকানি সব সমস্যার সমাধান দেখে নিন

59
Monsoon Skin Problem : বর্ষায় বেশি বাড়ে চর্মরোগ, জ্বালাভাব থেকে চুলকানি সব সমস্যার সমাধান দেখে নিন

মহানগর ডেস্ক : বর্তমানে পরিবেশের দূষণ যত বাড়ছে ততোই বাড়ছে রোগের প্রকার। বিভিন্ন এলার্জির মধ্যে সবথেকে ভয়ঙ্কর হলো চর্মরোগ। বিশেষ করে আকাশ যেই কালো করে অমনি ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা দেখা দেয়। বিশেষ করে একজিমা(Monsoon Skin Problem) হলে তো কথাই নেই। তবে চিকিৎসকদের পরিভাষায় এর অপর একটি নাম রয়েছে। যা এটোপিক ডার্মাটাইটিস নামে পরিচিত।

আরো পড়ুন, সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের ছবি বদলে ফেললেন প্রধানমন্ত্রী

এই রোগের মূল লক্ষ্য গুলি হল ত্বক শুষ্ক হয়ে যাওয়া, ফেটে যাওয়া, চুলকানি বা ফসকা পরা ইত্যাদি। চিকিৎসকদের মতে অনুযায়ী প্রত্যেক ১০০ শতাংশের মধ্যে ৬০ শতাংশ দু বছরের শিশুদের এবং ৮০ শতাংশ ৫ বছরের নিচের শিশুদের ক্ষেত্রে দেখা যায়। এছাড়া প্রাপ্তবয়স্কদের ক্ষেত্রে রোগের লক্ষণ দেখা যায়।

এছাড়া একজিমা বা ত্বকের সমস্যা হতে পারে পারিবারিক। অর্থাৎ পরিবারের যদি কারো বিশেষ ত্বকের সমস্যা দেখা যায় তাহলে তা পরবর্তী প্রজন্মের ক্ষেত্রেও দেখা যায়। এছাড়া মহিলাদের মাতৃকালীন অবস্থায় বা ঋতুস্রাব চলাকালীন একজিমার সমস্যা দেখা যায়। তাই সঠিক সময় সম্পূর্ণ না করলে পরবর্তীকালে তার সমস্যা দেখা যায়।

তবে কিছু ক্ষেত্রে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করা যায় রোজকার জীবনের সামান্য বদল দিয়ে। যেমন সারাবছর ঈষদুষ্ণ জলে চান করা। স্নান করার তিন মিনিটের মধ্যে সারা গায়ে ভালোভাবে ময়েশ্চারাইজার লাগানো।

সাবান ব্যবহার করলে ত্বকের ক্ষেত্রে যাতে তা অত্যন্ত মৃদু প্রকৃতির হয় তা খেয়াল রাখতে হবে। কারণ বেশি ক্ষারযুক্ত সাবান ত্বকের যাবতীয় তেল শুষে নিয়ে ত্বককে আরও খসখসে বানিয়ে দেয়। যার ফলে চুলকানি বা জ্বালা ভাব আরও বেড়ে যায়।

বিশেষ করে বর্ষায়(Monsoon Skin Problem) সব ধরনের ত্বকের সংক্রমণ একটু বেশি দেখা যায়। এইসময় চুলকানি,জ্বালা ভাব, রাশ একটু বেশি দেখা যায়। অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। তার পরামর্শ মতে ওষুধ খান। যদি দেখেন ত্বকের সমস্যা দীর্ঘ হচ্ছে তাহলে অবশ্যই ভালো চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

Monsoon Skin Problem