করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে শ্বাসকষ্টের উপসর্গ বেড়েছে, কমছে অক্সিজেন জোগানের,  দাবি কেন্দ্রের

9
oxygen cylinders

 মহানগর ডেস্ক: দেশে করোনা পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছে। প্রতিদিন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। দ্বিতীয় ঢেউয়ে দেশের পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ হয়ে উঠেছে। বিভিন্ন রাজ্য থেকে অক্সিজেনের ঘাটতি দেখা গিয়েছে। এই বিষয়ে কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়েছে, করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বেশিরভাগের শ্বাসকষ্টের সমস্যা দেখা দিয়েছে। যার জেরে দেশে অক্সিজেনের ব্যাপক ঘাটতি দেখা দিয়েছে।

নীতি আয়োগের সদস্য ভিকে পাল জানিয়েছেন, করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বেশ কয়েকটি উপসর্গ মারাত্মক আকারে দেখা দিয়েছে। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে আক্রান্তদের সারা শরীরে ব্যথা আগের থেকে অনেক বেশি হচ্ছে। শ্বাসকষ্টের হারও আগের থেকে অনেকটা বেড়ে গিয়েছে। করোনার দুটি ঢেউয়েই  ৭০ শতাংশ রোগীর বয়স ৪০-য়ের থেকে বেশি। অন্য দিকে, আইসিএমআরের ডিরেক্টর বলরাম ভার্গব জানিয়েছেন,  লকডাউন ওঠার পর থেকে তরুণদের বাইরের জগতের সঙ্গে অনেক বেশি যোগাযোগ। কিন্তু আগের মতো এবারেও তরুণদের করোনা নিয়ে বেশি ঝুঁকি নেই। যদিও স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, গতবারের সঙ্গে এবারের করোনার মৃতের হারে বিশেষ কোনও পার্থক্য নেই। এবারে ব্যাপক পরিমাণে মানুষ করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। সেই কারণে মৃত্যুর সংখ্যাও বাড়ছে। তবে করোনায় মৃতের হায় প্রায় এক রয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে ১,৭৩,৮১০ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।  একদিনে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১,৬১৯ জন। গত বছর থেকে করোনা সংক্রমণ শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দেড় কোটি ছাড়িয়ে গিয়েছে। গত পাঁচ দিন ধরে টানা দৈনিক সংক্রমণ দুই লক্ষ ছাড়িয়ে গিয়েছে। মহারাষ্ট্রে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে সব থেকে বেশি ক্ষতি হয়েছে। মহারাষ্ট্র, দিল্লিতে করোনা সংক্রমণের জেরে স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। মহারাষ্ট্র, দিল্লি সহ দেশের একাধিক রাজ্যে করোনার ঘাটতি দেখতে পাওয়া গিয়েছে।