নেই পর্যাপ্ত পরিমাণ চালক, কবে চালু হবে শিয়ালদহ মেট্রো পরিষেবা? কী বলছে মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষ

109

মহানগর ডেস্ক: চালকের অভাবে চালু করা যাচ্ছে না শিয়ালদহ মেট্রো পরিষেবা। সমস্যা দেখা দিচ্ছে ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোতে। জানা গিয়েছে, শিয়ালদহ-সেক্টর ৫ মেট্রোয় মিলছে না চালক। শীঘ্রই যে পরিষেবা চালু হওয়ার কথা ছিল, আজ তা নিয়ে অনেক প্রশ্ন উঠছে।

মূলত অতিরিক্ত পরিষেবা দিতে যে পরিমাণ চালকের প্রয়োজন তা নেই মেট্রো রেলের কাছে। জানা গিয়েছে এমনটাই। দক্ষিনেশ্বর থেকে কবি সুভাষ পর্যন্ত এবং ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো প্রকল্প মিলিয়ে ২৬৮ জন পাইলটের প্রয়োজন। এই মুহূর্তে সংখ্যাটা দাঁড়িয়েছে ২১০-এ। চলতি মাসে আরও তিনজন অবসর গ্রহণ করবেন। যে কারণে সংখ্যাটা আরও কিছুটা কমবে।

মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, ৮ জন কনডাক্টিং মোটোর ম্যানকে প্রমোশন দিয়ে এখানে নিয়ে আসা হচ্ছে। কিন্তু তাতেও যে পরিমাণ চালক রয়েছে, তা যথেষ্ট নয়। এই সংখ্যক মোটরম্যান নিয়ে ইস্ট-ওয়েস্ট, নর্থ-সাউথ পর্যন্ত মেট্রো পরিষেবা চালু করা একটু অসুবিধাজনক। শিয়ালদহ মেট্রো চালু হলে ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো প্রকল্প যথেষ্ট লাভজনক হয়ে উঠবে। যাত্রীদের সংখ্যা অনেকটাই বাড়বে। সেদিক থেকে ভাবলছ, শনি-রবিবারেও সেইসময় মেট্রো চালাতে হবে। কিন্তু তাতে একজন চালককে টানা কাজ করতে হবে। আর তা কার্যত সঠিক নয় বলেই অনেকর মন্তব্য।

সেই কারণে যতক্ষণ না পর্যন্ত পর্যাপ্ত পরিমাণে চালক মিলছে, ততদিন পর্যন্ত সুষ্ঠুভাবে শিয়ালদহ মেট্রো পরিষেবা চালু করা সম্ভব নয়। এদিকে কলকাতা মেট্রোর ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার বলেছেন, এখন যে পরিমাণ মোটর ম্যান উপস্থিত রয়েছে তা পর্যাপ্ত মাত্রায় আছে। সেইসঙ্গে কিছু জনকে প্রমোশন দিয়ে ড্রাইভিং মোটর ম্যান করা হয়েছে। নতুন যে কয়জন লাগবে, সেই মতো চিঠি ইস্টার্ন রেলওয়ে ও সাউথ-ইস্টার্ন রেলওয়েকে পাঠানো হয়েছে। মোটর ম্যান মিললেই তাদের তিন মাস ট্রেনিং করিয়ে চালু করা হবে পরিষেবা।

যেহেতু মেট্রোরেলকে মোটর ম্যান পেতে নির্ভরশীল হতে হচ্ছে পূর্ব ও দক্ষিণ পূর্ব রেলের উপর, তাই প্রক্রিয়ায় কিছুটা হলেও সময় বেশি লাগছে। সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, দক্ষিণ পূর্ব রেল এই বিষয়ে তেমন কোনও আশা জোগায় নি। সেইসঙ্গে পূর্ব রেলের উপর রয়েছে প্রচুর চাপ। তাই কবে শিয়ালদহ মেট্রো পরিষেবা চালু হবে? তা প্রশ্নের মুখে দাঁড়িয়ে রয়েছে।