Home Offbeat UP Girl Made History : আদালত চত্বরে খুন বাবা, ডিএসপি হয়ে তার স্বপ্ন সফল করল মেয়ে!

UP Girl Made History : আদালত চত্বরে খুন বাবা, ডিএসপি হয়ে তার স্বপ্ন সফল করল মেয়ে!

by Mahanagar Desk
0 views

মহানগর ডেস্ক:  আত্মীয়কে খুনের অভিযোগে জেল হয়েছিল বাবার। আদালতে তাকে পেশ করার সময় প্রকাশ্যে তাকে গুলি চালিয়ে খুন করেছিল নিহতের ভাই  । গুলি চালিয়ে খুন করে সে চম্পট দেয় সেখান থেকে। আদালত চত্বরেই রক্তাক্ত অবস্থায় পড়েছিল দেহটা। সালটা ছিল ২০১৫। সেসময় নিহত ব্যক্তি যোগেন্দ্র সিংয়ের মেয়ে আয়ুষি পড়তো একাদশ শ্রেণিতে। সে এক ভয়ঙ্কর সময়।

তবে বাবার মৃত্যুর পর ভেঙে না পড়ে তখনই সেসময় মেয়ে প্রতিজ্ঞা করে তাকে নিয়ে বাবা যে স্বপ্ন দেখেছিল তা সে পূরণ করবেই । হ্যাঁ, মৃত বাবার স্বপ্ন সফল করতে আদাজল খেয়ে লড়াইয়ের ময়দানে নেমে পড়ে মেয়ে আয়ুষি। আর সেই মরণপণ লড়াইয়ের ফলও মিলেছে হাতেনাতে (UP Girl Made History)। উত্তরপ্রদেশের মোরাদাবাদের আশিয়ানা কলোনির বাসিন্দা সেদিনের সেই পিতৃহারা কিশোরী এবছর ইউপিএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে মৃত বাবার স্বপ্ন পূরণ করেছে। পরীক্ষায় পাস করে ডেপুটি সুপারিন্টেন্ডেন্ট পদে নির্বাচিত হয়েছে আয়ুষি। বাবা খুন হওয়ার পর স্বপ্নসফল করতে প্রতিদিন ছ থেকে সাতঘণ্টা পড়তো সে। তাঁর প্রাথমিক লক্ষ্য ছিল যেভাবেই হোক একজন আইপিএস অফিসার হওয়ার। যা ভবিষ্যতে আর যেন এ ধরণের ঘটনা না ঘটে।

সংবাদমাধ্যমকে আয়ুষি জানিয়েছে সে পুলিশ প্রশাসনের মধ্যে অনেক ব্যর্থতা দেখেছে। তাই সে পুলিশ প্রশাসনে যোগ দিয়ে যাতে ফের এ ধরণের ঘটনা আর না ঘটে, সেজন্য মনেমনে প্রতিজ্ঞা করেছিল। বাবার মৃত্যুর পর এখন পরিবারে রয়েছে মা,ভাই ও মায়ের নাতিনাতনিরা। আয়ুষির ভাই আইআইটি দিল্লি থেকে এমটেক পড়ছে। তবে ইউপিএসসিতে এটি তার দ্বিতীয়বারের চেষ্টা।

প্রথমবারের মেন পরীক্ষায় লিখিত ও ইন্টারভিউয়ে অংশ নিয়েছিল আয়ুষি। সে জানিয়েছে তার বাবা বরাবর চাইতো সে যেন প্রশাসনিক কেরিয়ারের পথ ধরে এগোয়। একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণিতে বিজ্ঞান নিয়ে পড়লেও স্নাতক পর্যায়ে আয়ুষি হিউম্যানিজ নিয়ে পড়াশোনা করতে শুরু করে। স্নাতক ক্লাসে পড়ার সময়ই সে ইউপিপিএসসিতে পরীক্ষা দেওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছিল। তবে সাফল্য আসে মাস্টার্স পড়ার সময়।

আয়ুষি ২০২০ সালে ইউজিসি নেট পরীক্ষাতেও উত্তীর্ণ হয়। তবে তার এই সাফল্যের পেছনে পরিবারের সমর্থন স্বীকার করে সে। তার মতে, সিভিল সার্ভিসে সফল হওয়ার সফর আসলে রোলার কোস্টার চড়ার মতো। প্রত্যেকেরই ধৈর্য থাকা জরুরি। লড়াইয়ে পিছিয়ে গেলেও সেই ব্যর্থতাই আত্মবিশ্বাসী করে তুলবে। তাই প্রথমে স্নাতক স্তরের পড়াশোর শেষ করে প্রস্তুতি নেওয়া দরকার। তাহলেই সাফল্য আসবে।

You may also like

Mahanagar bengali news

Copyright (C) Mahanagar24X7 2024 All Rights Reserved