একের পর এক পড়ছে চিকিৎসকদের ইস্তফাপত্র, স্বাস্থ্য ভবন থেকে দেওয়া হল শোকজের হুঁশিয়ারি

56

মহানগর ডেস্ক: একের পর এক জমা পড়ছে ইস্তফাপত্র। এবার তার বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিতে চলেছে স্বাস্থ্য ভবন। মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালগুলিতে কর্মরত চিকিৎসকেরা একের পর এক গরহাজির থাকছেন। ইস্তফা দিচ্ছেন। এইরূপ কর্মফল হলে সংকট দেখা দিয়েছে চিকিৎসকের। সমস্যা সমাধানের জন্য কড়া ব্যবস্থা নিচ্ছে স্বাস্থ্য দপ্তর। ইস্তফা প্রক্রিয়া নিশ্চিত করার জন্য প্রতিটি মেডিকেল কলেজকে চিঠি দেওয়া হয়েছে স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিকর্তা দেবাশীষ ভট্টাচার্যের পক্ষ থেকে। ইস্তফা দেওয়ার পরে তা গৃহীত না হওয়া পর্যন্ত কাজে ফাঁকি যাবেন না।

মঙ্গলবারে এই কথা জানিয়ে দেওয়া হয় স্বাস্থ্য ভবনের তরফে। স্বাস্থ্য ভবনের তরফে পাঠানো চিঠিতে জানানো হয়েছে, সম্প্রতি দেখা গিয়েছে WBMES এর একটি বড় অংশ ফ্যাকাল্টি প্রিন্সিপাল ও ডিরেক্টরদের কাছে ইস্তফা চিঠি দিচ্ছে। আবার অনেকে সরাসরি স্বাস্থ্য ভবনে পাঠিয়ে দিচ্ছে। স্বাস্থ্য ভবনের ক্ষেত্রে কড়া ভাষায় বলা হয়েছে, অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যাচ্ছে বেশ উদাসীন ভাবে নির্দিষ্টভাবে না মেনেই ইস্তফা দেওয়া হচ্ছে। অনেক ক্ষেত্রে ইস্তফা দেওয়ার পর তারা সংশ্লিষ্ট মেডিকেল কলেজ বা প্রতিষ্ঠান অনুপস্থিত থাকছে। এর ফলে রোগী পরিসেবার ক্ষেত্রে বা চিকিৎসক পড়ুয়াদের প্রশিক্ষণ দেওয়ার ক্ষেত্রে নানাবিধ সমস্যা দেখা দিচ্ছে।

সম্প্রতি মেডিকেল কলেজগুলোতে চিকিৎসকের অভাব চোখে পড়েছে। বেশ কিছু ক্ষেত্রে চিকিৎসকদের ধরনা, চিকিৎসকদের দাবির না মানার ক্ষেত্রে। এছাড়াও স্বাস্থ্য ভবনের তরফে জানানো হয়েছে, যারা ইস্তফা দেবেন তাদের প্রত্যেককে নির্দিষ্ট চ্যানেল মারফত ইস্তফা পত্র জমা করতে হবে। ইস্তফা পত্র কলেজ বা প্রতিষ্ঠান প্রিন্সিপালের কাছে প্রথমে জমা করতে হবে। সেই ইস্তফা পত্র প্রিন্সিপালের কাছে পৌঁছনোর পর সেই পত্র নিয়ে রাজ্য সরকার যতক্ষণ না পর্যন্ত কোনও সিদ্ধান্ত নিচ্ছে ততক্ষণ চিকিৎসকদের কাজ চালিয়ে যেতে হবে।