ভারতই একমাত্র দেশ যেখানে লকডাউন করেও কোনও লাভ হয়নি, কেন্দ্রকে খোঁচা চিদম্বরমের

5
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে আক্রমণ অব্যাহত কংগ্রেসের। দেশজুড়ে বাড়তে থাকা করোনা সংক্রমণ নিয়ে এদিন ফের একবার কেন্দ্রকে নিশানায় নিলেন কংগ্রেস সাংসদ তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম। কংগ্রেসের এই বরিষ্ঠ নেতা এদিন দাবি করেছেন, ভারতই একমাত্র দেশ যে লকডাউনের কোনও ফায়দা নিতে পারেনি। তাঁর দাবি, যে স্ট্র্যাটেজিতে ভারতের লকডাউন লাগু করা হয়েছিল তা কোনও ভাবেই লাভজনক হয়নি।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ভারতে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৪০ লক্ষ পেরিয়ে যাওয়ার পরে কেন্দ্রের উদ্দেশ্যে সরাসরি আক্রমণ শানিয়েছেন চিদম্বরম। সেপ্টেম্বর মাসের শেষে ভারতে করোনা সংক্রমণের সংখ্যা ৬৫ লক্ষ পেরিয়ে যেতে পারে বলে অনুমান করেছেন তিনি। যদিও কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক গতকালই জানিয়েছে, মোট আক্রান্ত ৪০ লক্ষ মানুষের মধ্যে ৩১ লাখের বেশি সেরে উঠেছেন। ফলে বর্তমানে দেশে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা ৯ লাখের আশেপাশে রয়েছে।

চিদম্বরম এদিন টুইট করে লিখেছেন, ‘আমি অনুমান করেছিলাম ৩০ সেপ্টেম্বরের আগে ভারতে করোনা সংক্রমনের সংখ্যা ৫৫ লক্ষে পৌঁছে যাবে। আমি ভুল বলেছিলাম। ২০ সেপ্টেম্বরের মধ্যেই ভারতে করোনা সংক্রমণ সেই সংখ্যায় পৌঁছবে। সেপ্টেম্বরের শেষে হয়তো মোট সংখ্যা 65 লাখ হয়ে যাবে।’ তিনি আরও লেখেন, ‘এখন মনে হচ্ছে ভারতই একমাত্র দেশ যে পরিকল্পনা মাফিক লকডাউনের কোনও সুবিধা নিতে পারেনি।’

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যেদিন প্রথম লকডাউন লাগু করার কথা ঘোষণা করেন সেদিন তিনি বলেছিলেন, ‘২১ দিনের লড়াই’। এই ২১ দিনেই নাকি করোনাকে হারিয়ে ফেলা সম্ভব হবে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সেই বক্তব্যকে হাতিয়ার করেই পাল্টা প্রশ্ন করেছেন চিদাম্বরম। তিনি টুইটারে লেখেন, ‘প্রধানমন্ত্রী মোদী যিনি বলেছিলেন ২১ দিনে করোনা কে হারিয়ে ফেলবো, তাঁর এখন ব্যাখ্যা দেওয়া উচিত কেন ভারত ব্যর্থ হল যখন অন্যান্য দেশ একই কাজে সফল হতে পারল।’

কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রককেও কটাক্ষ করেছেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। ২০১৯-২০ অর্থবর্ষে প্রথম ত্রৈমাসিকে কেন অর্থনীতি এমন পতন দেখল, এর কোনও যুক্তিযুক্ত ব্যাখ্যাও কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর কাছে নেই বলে জানান চিদম্বরম।