২০২৪ সালে বিজেপির তরফে প্রধানমন্ত্রীর মুখ হবেন নরেন্দ্র মোদিই! জল্পনা তুঙ্গে

56

মহানগর ডেস্ক: ২০২৪ সালে বিজেপির তরফে প্রধানমন্ত্রীর মুখ হবেন নরেন্দ্র মোদিই, আজ্ঞে হ্যাঁ এমনটাই ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি নিজেই। বৃহস্পতিবার নয়া দিল্লি থেকে গুজরাটের ভারুচ জেলায় একটি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উৎকর্ষ সমারোহে ভাষণ দেন তিনি। আর এই অনুষ্ঠানেই এইরূপ ইঙ্গিত দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

এদিনের অনুষ্ঠানে তিনি জানান যে একদা বিরোধী শিবিরের কোন এক সিনিয়র নেতা তাঁকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন যে দুইবার দেশের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পরও তাঁর জীবনে আর কীই বা অর্জন করার থাকতে পারে?

আর সেই প্রশ্নের পরিপ্রেক্ষিতে নিজের উত্তরের প্রসঙ্গ টেনে নরেন্দ্র মোদি বৃহস্পতিবার বলেন,’ একবার এক নেতার সঙ্গে সাক্ষাত্‍ হয়েছিল আমার। তিনি একজন অত্যন্ত সিনিয়র নেতা। তিনি আমার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ হতে পারেন, কিন্তু আমি তাঁকে শ্রদ্ধা করি। একদিন তিনি আমার সঙ্গে দেখা করেন কয়েকটি ইস্যু নিয়ে কথা বলার দরুণ। তখনই তিনি বলেন, ‘মোদিজি, আপনি আর কী চান? দেশ তো আপনারে দু’বার প্রধানমন্ত্রী বানিয়ে দিল। আপনার তো সবকিছুই অর্জন করা হয়ে গিয়েছে।’ তিনি ভেবেছিলেন দু’বার প্রধানমন্ত্রী হওয়াটা বুঝি বিরাট প্রাপ্তি। কিন্তু তিনি জানতেন না মোদি কী দিয়ে তৈরী। গুজরাটের মাটিই আমাকে নির্মাণ করেছেন। এখনই আমার বিশ্রাম নেওয়ার মতো কিছু হয়নি। আমার স্বপ্ন হল স্যাচুরেশন, কল্যাণমূলক প্রকল্পগুলির ১০০ শতাংশ কভারেজ।’

যদিও প্রধানমন্ত্রী মোদি তাঁর এইরূপ মন্তব্যের সময় কারও নাম উল্লেখ করেননি। তবে রাজনৈতিক মহলে জল্পনা শুরু হয়েছে যে মন্তব্যটি সিনিয়র বিরোধী নেতা শরদ পাওয়ারকে নিয়েই করেছেন তিনি। এক মাস আগে, এনসিপি প্রধান দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রীর সাথে দেখা করেছিলেন এবং শিবসেনা সাংসদ সঞ্জয় রাউত এবং মহারাষ্ট্রের উপ-মুখ্যমন্ত্রী অজিত পাওয়ারের পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলির পদক্ষেপের বিষয়টি উত্থাপন করেছিলেন।