প্রধানমন্ত্রীর জম্মু-কাশ্মীর সফরকে কেন্দ্র করে বলার কোনও অবস্থান পাকিস্তানের নেই: অরিন্দম বাগচী

102

মহানগর ডেস্ক: নরেন্দ্র মোদির জম্মু-কাশ্মীর সফরের বিরুদ্ধে পাকিস্তানের মন্তব্যতে আপত্তি জানাল বিদেশ মন্ত্রক। কোনও অতিরিক্ত শব্দ ব্যবহার না করে এদিন অরিন্দম বাগচী বলেন যে, পাকিস্তানি সংস্থার কাছে প্রধানমন্ত্রীর জম্মু-কাশ্মীর সফর নিয়ে মন্তব্য করার কোনও অবস্থান নেই।

পাকিস্তান প্রধানমন্ত্রীর জম্মু-কাশ্মীর সফরে একাধিক প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন নিয়ে আপত্তি তোলে। এরপরই MEA-এর ( Ministry Of External Affairs) তরফ থেকে প্রতিক্রিয়া আসে। পাকিস্তানের পররাষ্ট্র দপ্তর থেকে এপ্রিলের ২৪ তারিখ বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘২০১৯-এর ৫ আগস্ট থেকে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় লক্ষ্য করেছে কাশ্মীরের প্রকৃত সমস্যার বিষয়গুলো থেকে মনোযোগ সরাতে ভারত অনেক প্রচেষ্টা চালিয়েছে’।

প্রধানমন্ত্রী জাতীয় পঞ্চায়েতি রাজ দিবসে অংশ নিতে ২৩ এপ্রিল জম্মু-কাশ্মীর সফর করেছেন। তাঁর সফরের সময় তিনি ২০ হাজার কোটি টাকার বেশি মূল্যের একাধিক উন্নয়ন, উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন। এমনকি বানিহাল কাজীগুন্ড চ্যানেলের উদ্বোধন করেছেন তিনি’।

সেইসঙ্গে জলবিদ্যুৎ প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর নরেন্দ্র মোদি স্থাপন করলে উত্তাল হয়ে ওঠে পাকিস্তান। এই প্রকল্পটি প্রায় ৫ হাজার ৩০০ কোটি টাকার ব্যয়ে নির্মিত হবে। ৫৪০ মেগাওয়াটের জলবিদ্যুত প্রকল্প। মূলত অঞ্চলের বিদ্যুৎ চাহিদা মেটাতে এই প্রকল্পের কথা ভাবা হয়েছে। ভারতের জলবিদ্যুৎ প্রকল্প নির্মাণের জন্য ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনেরও সমালোচনা করেছে পাকিস্তান। বলা হয়েছিল, ‘ওই দেশের ডিজাইন করা জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রের নির্মাণ সম্পর্কে পাকিস্তানের সঙ্গে তথ্য ভাগ করে নেওয়ার কোনও বাধ্যবাধকতা পূরণ করা হয়নি’।

অপরদিকে চিনা নাগরিকদের পর্যটক ভিসা ভারতের স্থগিত করার সিদ্ধান্তের বিষয়েও মন্তব্য করেছেন বিদেশমন্ত্রী। বলেছেন, চিনা কর্তৃপক্ষ আমাদের ভিসা দেয়নি এবং ২০২০ থেকে ভিসা প্রদান স্থগিত করেছে। এদিন পাকিস্তানের প্রত্যেকটি মন্তব্যের বিরোধিতা করেছেন অরিন্দম বাগচী।