নভজ্যোত সিং সিধুকে পঞ্জাবের মন্ত্রী করার জন্য আমাকে অনুরোধ করেছিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী : ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং

8

মহানগর ডেস্ক: দেশের পাঁচ রাজ্যে বেজে গিয়েছে ভোটের দামামা। আর এই পাঁচ রাজ্যের তালিকায় রয়েছে পঞ্জাবের নামও। আর এই আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনকে পাথেয় করেই নিজেদের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে মরিয়া সেই রাজ্যের রাজনৈতিক দলগুলো। আগামী মাসের ২০ তারিখ এক দফায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে পঞ্জাবের বিধানসভা ভোট।

এই আসন্ন নির্বাচনেই প্রথমবারের জন্য বিজেপি এবং শিরোমণি অকালি দলের সঙ্গে জোট বেঁধে লড়বে রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিংয়ের দল পঞ্জাব লোক কংগ্রেস। আর ভোটের দিন যত এগিয়ে আসছে ততই যেন রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে কটাক্ষ পাল্টা কটাক্ষের ঝাঁঝ আরও বৃদ্ধি পাচ্ছে। কংগ্রেসে থাকাকালীনই নভজ্যোত সিং সিধু এবং ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিংয়ের মধ্যেকার তিক্ত সম্পর্কের কথা সকলেরই জানা।

এবার পঞ্জাব বিধানসভা নির্বাচনের কিছু সপ্তাহ আগে হাত শিবিরের নেতার বিরুদ্ধে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন পঞ্জাব লোক কংগ্রেস সুপ্রিমো। সোমবার দিল্লিতে সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলেন,’ পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী তাঁর এক পরিচিত মারফত আমাকে ফোন করিয়ে একটি অনুরোধ পাঠিয়েছিলেন নভজ্যোত সিং সিধুকে পঞ্জাবের মন্ত্রী করার জন্য। এমনকি তিনি এও বলেছিলেন যে সিধুকে মন্ত্রিসভার সদস্য করলে তিনি কৃতজ্ঞ থাকবেন। তবে তিনি কাজ না করতে পারলে আপনি তাঁকে অপসারণ করে দেবেন, এও বলা হয়েছিল।’

 

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, সূত্রের খবর অনুযায়ী জানা গিয়েছে যে পিএলসি, বিজেপি এবং এসএডি জোটে মোট ৬৫ আসনে লড়বে গেরুয়া শিবির, ৩৭ টি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে পঞ্জাব লোক কংগ্রেস।