‘ঐশী তুমি ভয় পেয়ো না আমরা তোমার সঙ্গে আছি’, মাঝরাতে পথে নামল দেশের ছাত্রসমাজ

8
jnu protest

Highlights

  • ‘গেরুয়া বাহিনীর’ হামলার ঘটনা মাঝ রাতে রাস্তায় নামতে বাধ্য করল ছাত্রসমাজকে
  • কোথাও চলল মোমবাতি হাতে মৌন মিছিল। কোথাও বা মশাল হাতে উঠল ‘আজদি’র স্লোগান
  • বার্তা একটাই, ‘ঐশী তুমি ভয় পেয়ো না আমরা তোমার সঙ্গে আছি’

মহানগর ওয়েবডেস্ক: দেশের গর্ব জওহরলাল নেহরু বিশ্ব বিদ্যালয়ে ‘গেরুয়া বাহিনীর’ হামলার ঘটনা মাঝ রাতে রাস্তায় নামতে বাধ্য করল ছাত্রসমাজকে। কলকাতার যাদবপুর হোক বা মুম্বইয়ের গেটওয়ে অব ইন্ডিয়া। বর্বর এই আক্রমণের বিরুদ্ধে পথে নেমে এল সমাজের সব শ্রেণীর মানুষরা। কোথাও চলল মোমবাতি হাতে মৌন মিছিল। কোথাও বা মশাল হাতে উঠল ‘আজদি’র স্লোগান। তবে আরব সাগর থেকে গঙ্গানদীর পাড়ের শহরের সুর মিলে গিয়েছে এতদিনে। বার্তা একটাই, ‘ঐশী তুমি ভয় পেয়ো না আমরা তোমার সঙ্গে আছি’।

রবিবার সন্ধে বেলা জেএনইউ ক্যাম্পাসে ঢুকে যে বর্বরতা চালানো হয়েছে তা ব্যাখ্যা করার জন্য কোনও শব্দই যথেষ্ট নয়। এইমস কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ২০ জনের মতো পড়ুয়া ও অধ্যাপককে ভর্তি করা হয়েছে যাদের মধ্যে দু’জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। ছাত্র সংসদের সভানেত্রী ঐশী ঘোষ সহ অধ্যাপিকা সুচিত্রা সেনকে ট্রমা কেয়ার ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তারক্ষীরা নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করে বলেও অভিযোগ উঠেছে।

হামলার প্রতিবাদ জানিয়ে রাতেই মোমবাতি মিছিল বের করে আলীগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা। মুম্বইয়ের একদল পড়ুয়া গেটওয়ে অব ইন্ডিয়ার সামনে বসে মোমবাতি জ্বালিয়ে নীরবে এই ঘটনার প্রতিবাদ জানায়। পথে নেমে আসে মাসখানেক আগেই পুলিশের হাতে আক্রান্ত জামিয়া মিলিয়ার ছাত্রছাত্রীরাও। যাদবপুরের পড়ুয়ারাও মাঝরাতে ৮বি বাসস্ট্যান্ড চত্বরে বিক্ষোভ দেখায়। সোমবার দেশের মেট্রো শহরগুলোতে দফায় দফায় এই ঘটনার নিন্দা জানানোর কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। ছাত্রসমাজের ওপর রাষ্ট্রের এহেন ভূমিকার নিন্দায় মুখর হয়েছে বুদ্ধিজীবী মহলও।