Home Lifestyle Paper Cup : শীতের দিনে বাইরে বেরোলেই কাগজের কাপে চা খাচ্ছেন? ভয়াবহ রোগের সম্মুখীন হচ্ছেন না তো?

Paper Cup : শীতের দিনে বাইরে বেরোলেই কাগজের কাপে চা খাচ্ছেন? ভয়াবহ রোগের সম্মুখীন হচ্ছেন না তো?

by Oindrila Chakraborty

মহানগর ডেস্ক : বর্তমানে চায়ের দোকানে কাঁচের গ্লাস সেভাবে দেখা যায় না। সৌখিন মাটির হাড়ের চাও আজ ইতিহাস। সব জায়গা দখল করে নিয়েছে কাগজ কিংবা প্লাস্টিকের কাপ। আর কাঁচের গ্লাস ভেঙ্গে যাওয়ার ঝুঁকিও রয়েছে। সবদিক থেকে কাগজের কাপ অনেক বেশি আশঙ্কাহীন। চা খাবার পর ফেলে দিলেই হয়। কিন্তু জানেন কি কাগজের কাপে চা খেলে হতে পারে বড়সড়ো বিপদ। প্লাস্টিক শরীরের জন্য ভীষণ ক্ষতি করে তাই প্লাস্টিকের কাপে চা দেওয়া অনেক জায়গাতেই বন্ধ হয়ে গিয়েছে। সব দিক থেকে কাগজকেই তাই এখন বেশি প্রাধান্য দেয়া হচ্ছে। তবে সম্প্রতি খড়গপুর আইআইটির একদল গবেষক বলেছেন এতেও বিপদ কমছে না বরং বাড়ছে।

কাগজ মানেই স্বাস্থ্যকর এই ধারণাটা কিছুটা হলেও ভুল। গবেষণায় কাগজের কাপ থেকে পাওয়া গিয়েছে হাইড্রোফোবিক্স নামক এক ধরনের মাইক্রো প্লাস্টিক। যাতে কোন রকম পানি ও বিশেষ করে গরম পানীয় ঢাললে সেই প্লাস্টিকের কণা মিশে যায় সেই পানি ওর মধ্যে। আর সেই ঘটনাটা ঘটে কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই। এইভাবে হাজার হাজার মাইক্রো প্লাস্টিক আমাদের শরীরের সঙ্গে মিশে যাচ্ছে। যার মধ্যে রয়েছে জিংক লেড কিংবা ক্রোমিয়ামের মতো বিপদজনক উপাদান।

প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ সারাদিনে যদি অন্তত কমপক্ষে তিন কাপ চা খায় এমন টাই ধরে নিলাম। প্রত্যেক চুমুকে তার শরীরে পৌঁছে যাচ্ছে প্রায় ৭৫ হাজার মাইক্রো প্লাস্টিক। প্লাস্টিকে আয়ন বেলজিয়াম ক্রোমিয়াম ক্যাডমিয়ামের মত ক্ষতিকারক উপাদান থাকে। মহিলাদের শরীরে ইস্ট্রোজেন হরমোন কমায় এবং পুরুষদের শুক্রাণু সংখ্যা কমিয়ে দেয়। রক্ত কোষের ছোট ছোট অংশ ভেঙে গিয়ে প্লাজমা কোষের হার অস্বাভাবিক ভাবে বাড়িয়ে দেয়। যার থেকে হতে পারে যেকোনো ধরনের মারণ রোগ।

You may also like