Firhad Hakim: জওয়ানদের জীবন নিয়ে খেলা করা হচ্ছে: ফিরহাদ হাকিম

54
জওয়ানদের জীবন নিয়ে খেলা করা হচ্ছে ফিরহাদ হাকিম

মহানগর ডেস্ক: বর্তমানে অগ্নিগর্ভ দেশ। কিন্তু কেন? বৃহস্পতিবার কেন্দ্রের তরফে ‘অগ্নিপথ প্রকল্পে’র ঘোষণা করা হয়। আর সেই ঘোষণার মুহূর্তের মধ্যে দেশে ছড়িয়ে পড়ে আগুন। দফায় দফায় বিক্ষোভ দেখায় বিক্ষোভকারীরা। একাধিক দূরপাল্লার ট্রেনে লাগিয়ে দেওয়া হয় আগুন। ভাঙচুর চালানো হয় ট্রেনে। রেল লাইনের মাঝে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখানো হয়। রাস্তার মাঝে বাস জ্বালিয়ে দেওয়া হয়। আর সেই অশান্তির আঁচ এসে পড়ে বাংলাতেও। বাংলার বিভিন্ন জায়গা অশান্ত হয়ে ওঠে। সেই নিয়ে তৎপর হয়ে উঠেছে প্রশাসনও। এবার সেই প্রসঙ্গে মন্তব্য করলেন রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী তথা কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম (Firhad Hakim)।

আরও পড়ুন: ‘চলবে না কোনও তোলাবাজি’, হুঁশিয়ারি পুলিশ সুপারের

রবিবার দমদম বিমানবন্দর থেকে ফিরহাদ হাকিম জানিয়েছেন, ‘দেশের প্রতিরক্ষা নিয়ে খেলা করা হচ্ছে। জওয়ানদের জীবন নিয়ে খেলা করা হচ্ছে। এটা অন্যায় হচ্ছে দেশের প্রতি। অগ্নিপথের জায়গায় যদি শর্ট সার্ভিস কমিশন করা যায় তাহলে তা অনেক লাভবান। গরীবের ছেলে, যারা বর্ডারে যাবেন, আর্মিতে যোগদান করবেন, তাদের চাকরি নিয়ে, তাদের ভবিষ্যৎ নিয়ে ছিনিমিনি খেলার অধিকার কেন্দ্রের নেই। তাদের ভবিষ্যতে কি পরিণত হবে তার কোনও নিশ্চয়তা নেই। অর্থাৎ এর থেকে পরিষ্কার ‘ইউজ অ্যান্ড থ্রো’। সেনাবাহিনীতে যোগদানের পর কাউকে পাঠিয়ে দেওয়া হয় লাদাখে, কাউকে পাঠিয়ে দেওয়া হয় কাশ্মীরে। তারপরে সেই আদৌ বেঁচে গেল না মরে গেল তাতে কেন্দ্রের কিছু যায় আসে না। এটা করলে চলবে না’।

আরও পড়ুন: ‘দল ছাড়া সকলেই বিগ জিরো,’দুধকুমার প্রসঙ্গে মুখ খুললেন সুকান্ত

কেন্দ্রের অগ্নিপথ প্রকল্পের মন্তব্য করেছেন মোহাম্মদ সেলিম। তিনি জানিয়েছেন, ‘সিনেমা থেকে নাম তুলে নিয়ে আসে কেন্দ্র। আর সেগুলোকেই প্রকল্প হিসেবে ব্যবহার করে। নতুন প্রজন্মের জীবন নষ্ট করছে সরকার। সকলকে বোকা বানানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। যা সকলেই ধরে ফেলেছে। বর্তমান প্রজন্ম অনেক বেশি ইন্টেলিজেন্ট। তাই তারা অনেক বেশি বোঝে। যার কারণে কেন্দ্রের বুজরুকি অনেক সহজেই ধরে ফেলেছে’।