‘গণতন্ত্রের রক্ষাকারীদের শত কোটি প্রণাম’, জরুরি অবস্থার বর্ষপূর্তিতে টুইট মোদীর

8
news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ১৯৭৫ সালের ২৫ জুন। আজ থেকে ঠিক ৪৫ বছর আগে এই দিনে ইন্দিরা গান্ধীর শাসনকালে দেশে জারি হয়েছিল জরুরি অবস্থা। অতীতের সেই কালো দিনকে বৃহস্পতিবার স্মরণ করলেন দেশের বিজেপি নেতৃত্বের পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেই সময় কংগ্রেসের এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করা নেতৃত্বকে গণতন্ত্রের রক্ষাকারী হিসেবে উল্লেখ করে তাদের উদ্দেশ্যে প্রণাম জানালেন মোদী। শুধু মোদী নন, টুইট করে কখনো কংগ্রেসকে আক্রমণ তো কখনো তৎকালীন বিরোধীদের প্রণাম জানিয়ে দিনটিকে স্মরণ করলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডার মতো নেতৃত্বরা।

জরুরি অবস্থার বর্ষপূর্তিকে স্মরণ করেন এদিন টুইটে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী লেখেন, ‘আজ থেকে ঠিক ৪৫ বছর আগে দেশে লাগু করা হয়েছিল জরুরি অবস্থা। সেই সময় ভারতের গণতন্ত্রকে রক্ষা করতে যারা লড়াই করেছিলেন এবং যাদের নানাবিধ সমস্যার মধ্যে দিয়ে যেতে হয়েছিল। তাদের প্রত্যেককে আমার কোটি কোটি প্রনাম। ওনাদের ত্যাগ ও বলিদান দেশ কখনও ভুলবে না।’ মোদীর পাশাপাশি সেই দিনকে স্মরণ করে এদিন টুইট করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তিনি লেখেন, ‘আজ থেকে ঠিক ৪৫ বছর আগে ক্ষমতার জন্য একটি পরিবারের লোক দেশে জরুরি অবস্থা লাগু করেছিল। রাতারাতি গোটা দেশকে বদলে ফেলা হয়েছিল আস্ত একটি জেলখানায়। সংবাদমাধ্যম, আদালত, মত প্রকাশের স্বাধীনতা সমস্ত কিছু শেষ করে দেওয়া হয়েছিল। ভয়ংকর অত্যাচার করা হয়েছিল গরিব এবং দলিত শ্রেণীর মানুষের উপর।’

পাশাপাশি তিনি আরও লেখেন, ‘লক্ষ লক্ষ মানুষের প্রচেষ্টার কারণে জরুরি অবস্থা প্রত্যাহার করা হয়েছিল সেই সময়। ভারতে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার হয়েছিল কিন্তু কংগ্রেসে আজও গণতন্ত্র নেই। একটি পরিবারের স্বার্থ দলের স্বার্থ এবং জাতীয় স্বার্থকে প্রাধান্য দেয়। দুঃখের বিষয় যে আজকের দিনেও কংগ্রেসে এমন পরিস্থিতি বিরাজমান।’ এমন দিনে টুইট করে কংগ্রেসকে আক্রমণ করতে ছাড়েনি বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। তিনি লেখেন, ‘ভারত সেই সমস্ত মহান ব্যক্তিত্বকে স্যালুট জানাই যারা সেই সময় চরম অত্যাচার সহ্য করেও জরুরি অবস্থার বিরোধিতা করেছিলেন। এটা সেই সময় আমাদের সত্যাগ্রহী নেতাদের একটি বড় জয় যারা দেশকে একনায়কবাদী ভাবধারা থেকে গণতন্ত্রে ফিরিয়ে এনেছিল।