বিনা নোটিশে শুভেন্দুর অফিসে পুলিশি তল্লাশি! হাইকোর্টের দ্বারস্থ বিরোধী দলনেতা

55

মহানগর ডেস্ক: গত রবিবার কোনও রকম নোটিশ ছাড়াই শুভেন্দু অধিকারী নন্দীগ্রামের কার্যালয় দেখা যায় পুলিশি তল্লাশি। আর তা নিয়ে রীতিমতো ক্ষোভে ফেটে পড়েছিলেন বিধায়ক নিজে। তিনি বিষয়টি রাজ্যপালকে জানান এবং ধনখড় এ বিষয়ে রিপোর্ট তলব করেছিলেন মুখ্যসচিবের কাছ থেকে। বিষয়টি এখানেই থেমে থাকেনি। এবার এ নিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা। ওয়ারেন্ট ছাড়া কিভাবে বিরোধী দল নেতার অফিসে তল্লাশি চালাতে পারে পুলিশ? বিষয়টি রাজনৈতিক হিংসা চরিতার্থ করার প্রক্রিয়া চলছে, এমনই দাবি করে কলকাতা হাইকোর্টের হস্তক্ষেপ চেয়ে মামলা দায়ের করলেন শুভেন্দু অধিকারী।

মঙ্গলবার মামলা দায়ের করার অনুমতি দিয়েছেন বিচারপতি রাজাশেখর মান্থা। গত রবিবার বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর অনুপস্থিতিতে তাঁর নন্দীগ্রামের অফিসে চলে পুলিশি তল্লাশি। সেই তল্লাশিতে দেখা গিয়েছিল তমলুক মহাকুমার পুলিশ আধিকারিকদের। কী কারণে এই তল্লাশি? তারই উত্তরের সন্ধানে আদালতে গিয়েছেন শুভেন্দু। জানা গিয়েছে, এই মামলার শুনানি হতে চলেছে আগামী বৃহস্পতিবার।

প্রসঙ্গত, রবিবার রাতে ঘটনাটি জানার পরই ক্ষোভে ফেটে পড়েন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। তিনি টুইট করে রাজ্য সরকারকে কটাক্ষ করেন বলেন, রাজনৈতিক হিংসা জেরেই এই পুলিশি অভিযান। এই ঘটনা জানার পরই নিন্দা করেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। তিনি যথারীতি মুখ্য সচিবকে এ বিষয়ে রিপোর্ট জমা দিতে বলেন রাজভবনে।

জানা গিয়েছে, এদিন আদালতে দায়ের করা শুভেন্দু অধিকারীর মামলা গ্রহণ করেছে কলকাতা হাইকোর্ট। আদালত সূত্রে খবর, আগামী বৃহস্পতিবার হবে এই মামলার প্রথম শুনানি।