Home Bengal ‘ভোট এগিয়ে আসতেই ক্যা ক্যা শুরু করেছে,’ নাগরিকত্ব ইস্যুতে মমতার নিশানায় বিজেপি 

‘ভোট এগিয়ে আসতেই ক্যা ক্যা শুরু করেছে,’ নাগরিকত্ব ইস্যুতে মমতার নিশানায় বিজেপি 

by Mahanagar Desk
22 views

মহানগর ডেস্কঃ ভোটের মুখে নাগরিকত্ব ইস্যু নিয়ে ফের সরব হলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। কোচবিহারের সরকারি অনুষ্ঠান থেকে সরাসরি বিজেপিকে নিশানা করেন তিনি। এদিন তিনি বললেন, “ভোট আসতেই ফের ক্যা ক্যা করছে।” তাঁর সাফ বার্তা, “সিএএ নিয়ে লাফালাফি করলে হবে না। সবাই নাগরিক। নাহলে কেউ ভোট দিতে পারতেন না।”

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই কেন্দ্র বনাম রাজ্যের দ্বন্দ্ব চরমে। প্রথম থেকেই কেন্দ্রেরের সিএএ’র বিরোধিতা করেছে রাজ্য সরকার। তৃণমূলের দাবি সকলেই নাগরিক। নাহলে তাঁরা ভোট দিতে পারতেন না। যদিও এই দাবি মানতে নারাজ গেরুয়া শিবির। এরই মাঝে গতকাল অর্থাৎ রবিবার দ্বন্দে ধোঁয়া দেন বিজেপি সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শান্তনু ঠাকুর। তিনি এদিন বলেন আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে রাজ্যে লাগু হবে সিএএ। তাঁর বক্তব্য, “মুখ্যমন্ত্রী বারবার সকলের ভোটাধিকার রয়েছে বলে দাবি করলেও মতুয়াদের অনেকেই নাকি ভোট দিতে পারেন না। শান্তনু ঠাকুর বলেন, সিএএ হলে মতুয়ারা যোগ্য সম্মান পাবে। তে পারতেন না।”

তৃনমূলের অভিযোগ লোকসভা নির্বাচনের আগে মতুয়াদের ভোট টানতেই সিএএ-কে হাতিয়ার করার চেষ্টা করছে বিজেপি। সোমবার কোচবিহারের সাংগঠনিক অনুষ্ঠান থেকে এমনটাই দাবি করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন বিজেপিকে নিশানা করে তিনি বলেন, “ভোট এগিয়ে আসতেই ক্যা ক্যা শুরু করেছে। সিএএ নিয়ে লাফালাফি করলে হবে না। এনআরসি হবে না। ”সঙ্গে এদিন তিনি আরোও বলেন, “সবাই নাগরিক। তাই সবাই ভোট দিতে পারেন। নাগরিক না হলে ভোটাধিকার থাকত না।” রাজনীতি করতেই ভোটের আগে সিএএ ইস্যুকে তোলা হচ্ছে বলেই দাবি করলেন মমতা। প্রসঙ্গত, বনগাঁ, রানাঘাট ও কৃষ্ণনগর-রাজ্যের এই তিনটি লোকসভা কেন্দ্র মতুয়া অধ্যুষিত। গত লোকসভা নির্বাচনে বনগাঁ, রানাঘাট নিজেদের দখলে রেখেছিল এবারও কি সেই অভিপ্রায় নিয়েই এই সিএএ-কে হাতিয়ার করতে চাইছে বিজেপি ? এখন সেই দিকেই নজর অন্যান্য রাজনৈতিক মহলের।

You may also like

Mahanagar bengali news

Copyright (C) Mahanagar24X7 2024 All Rights Reserved